তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৮ নভেম্বর ২০২০

তথ্যবিবরণী ২৮ নভেম্বর ২০২০

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ৪৫৫১

 

ফলোআপ চিকিৎসার উদ্দেশ্যে সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী

 

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

 

          ফলোআপ চিকিৎসার জন্য অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। আজ রাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তিনি সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হন।

 

          উল্লেখ্য, গত অক্টোবর মাসে অর্থমন্ত্রী ফলোআপ চিকিৎসার উদ্দেশ্যে দুবাই গিয়েছিলেন। কিন্তু করোনা ভাইরাসের দরুন উদ্ভূত বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার কারণে যথাযথভাবে চিকিৎসা গ্রহণ করতে না পারায় এখন আবার ফলোআপ চিকিৎসার প্রয়োজনীয়তা জরুরি হয়ে পড়ে।

 

          আগামী মাসে অর্থমন্ত্রী দেশে ফিরবেন বলে আশা ব্যক্ত করেছেন।

 

#

 

তানভীর/সাহেলা/মোশারফ/সেলিম/২০২০/২১৪০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ৪৫৫০

 

বঙ্গবন্ধু অমর, তাঁকে হত্যা করা যায়নি, তিনি অমরত্ব লাভ করেছেন

                                                     -- নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

 

ঈশ্বরদী (পাবনা), ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

 

          নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু অমর, তাঁকে হত্যা করা যায়নি। তিনি অমরত্ব লাভ করেছেন। এক মুজিবের রক্ত থেকে লক্ষ নয়; কোটি কোটি মুজিব জন্ম নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশে পরিণত হবে।

 

          প্রতিমন্ত্রী গতকাল পাবনার ঈশ্বরদীস্থ চরগরগড়িতে বঙ্গবন্ধু জন্মশতবর্ষ আন্তর্জাতিক পর্ষদ আয়োজিত  'বঙ্গবন্ধু ১০০ জন্মোৎসব' অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

 

          কবি ড. আব্দুল মজিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পাবনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রেজাউর রহমান লাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা নায়েব আলী বিশ্বাস, পাবনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান, কবি সুজন বড়ুয়া ও কবি আসলাম সানী।

 

          দু'দিনব্যাপী এ জন্মোৎসবের উদ্বোধন করেন কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা।

          উৎসব উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী, বইমেলা, আলোচনা সভা, কবিতাপাঠ, আবৃত্তি এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর রক্তের ঋণ শোধ করার দুঃসাহস আমাদের নেই। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার মাধ্যমে তাঁর প্রতি সম্মান জানানো হবে।

 

#

 

জাহাঙ্গীর/নাইচ/সাহেলা/মোশারফ/সেলিম/২০২০/২০৩৫ ঘণ্টা 

 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ৪৫৪৯

মানসম্পন্ন ও সাশ্রয়ী মূল্যে টেকসই বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

সরবরাহের লক্ষ্যে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে

                                      -- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

 

          বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, মানসম্পন্ন ও সাশ্রয়ী মূল্যে টেকসই বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সরবরাহের লক্ষ্যে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। পাইপলাইনের মাধ্যমে দেশের সর্বত্র গ্যাস দেয়া সম্ভব নয় বিধায় এলপিজি’র ব্যবহার বাড়ানো হচ্ছে। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনকে এলপিজির মূল্য রেগুলেট করার অনুরোধ করা হয়েছে। বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের ১ কোটি ৬৩ লাখ গ্রাহক লাইফ লাইনভুক্ত। সরকার তাঁদের ভুর্তকি দেয়। দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে এখনি ভর্তুকি থেকে বের হওয়ার সুযোগ নেই।

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর এনার্জি স্টাডিস এর আয়োজনে 'ফরমুলেশন অভ্‌ ন্যাশনাল এনার্জি পলিসি' শীর্ষক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে আমাদের কল্পনার থেকেও অনেক বড় জায়গা তৈরি হয়েছে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে।' এখাত পরিচালনার জন্য অনেক দক্ষ লোকবল প্রয়োজন। ভিশন-২০২১ ও ভিশন-২০৪১ এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে প্রযুক্তির প্রয়োগ ও ব্যবহার বাড়াতে হবে। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে অটোমেশন, স্মার্ট গ্রিড, স্ক্যাডা সেন্টার, আন্ডারগ্রাউন্ড ক্যাবলিং বাস্তবায়ন হলে পুরো সেক্টরেরই আমূল পরিবর্তন হবে।

 

          জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, উন্নয়নের ধারা ধরে রাখতে আমাদের প্রচুর প্রাথমিক জ্বালানি প্রয়োজন। ভাসমান টার্মিনালের মাধ্যমে এলএনজি আমদানি করা হচ্ছে। ল্যান্ড ব্যাজড এলএনজি টার্মিনাল করা হচ্ছে। এলপিজি টার্মিনাল করার বিষয়টিও এগিয়ে যাচ্ছে। একইসাথে প্রাকৃতিক গ্যাস অনুসন্ধানের কাজও সমান্তরালভাবে চলছে। তিনি আরো বলেন, নাবায়নযোগ্য জ্বালানির প্রসারে সরকার বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের চেয়ারম্যান হওয়ায় ক্লিন এনার্জি, গ্রিন এনার্জি এবং এনার্জি এফেসিয়েন্সির উপর আরও জোর দিচ্ছি।  সোলার হোম সিস্টেম-এর সাফল্যের নেপথ্যেও রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দিক-নির্দেশনা।  ইলেকট্রিক ভিহাইক্যাল -এর প্রসারে ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসের আহ্বান জানিয়ে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইলেকট্রিক ভিহাইক্যাল পরিবেশবান্ধব, সাশ্রয়ী ও তুলনামূলকভাবে ইঞ্জিনের দক্ষতা অনেক বেশি।

 

          'ফরমুলেশন অভ্‌ ন্যাশনাল এনার্জি পলিসি' শীর্ষক ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক ম. তামিম। তিনি পলিসি কী, বৈশিষ্ট্য, বাংলাদেশে পলিসি গ্রহণের প্রেক্ষাপট, জ্বালানি পলিসি উন্নয়নের জটিলতা, প্রতিক্রিয়াশীল ও প্ররোচক সিদ্ধান্ত ইত্যাদি বিষয় আলোচনা করেন।

 

          বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সত্য প্রসাদ মজুমদার-এর সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর এনার্জি স্টাডিস এর ডিরেক্টর অধ্যাপক ফারসিম এম. মোহাম্মদির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন বুয়েটের অধ্যাপক ইজাজ হোসাইন ও বুয়েটের সাবেক অধ্যাপক এম নুরুল ইসলাম।

#

 

আসলাম/সাহেলা/মোশারফ/সেলিম/২০২০/২০৩০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ৪৫৪৮

 

 ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারে জনসম্পদকে কাজে লাগাতে হবে

                                                ---মোস্তাফা জব্বার

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

 

          ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লব সবার জন্য এক নয়। উন্নত ও বৃদ্ধ জনগোষ্ঠীর দেশের চাইতে উন্নয়নশীল ও কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর দেশ হিসেবে আমাদেরকে আমাদের মতো করে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিতে হবে। আর তাতে আমাদের বাণিজ্য সংগঠনগুলোকে নেতৃত্ব দিতে হবে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারে আমাদের বিশাল জনসম্পদকে কাজে লাগানোর উপযোগী হতে হবে। এর লাগসই ব্যবহার নিশ্চিত করার মাধ্যমেই আমাদের বিশাল জনসম্পদকে কাজে লাগাতে হবে।

 

          মন্ত্রী আজ ঢাকায় ডিজিটাল প্লাটফর্মে বেসিস এর ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বেসিস নেতা এসএম কামাল, হাবিবুল্লাহ করিম, সারোয়ার আলম ও ফারহানা রহমান, বিসিএস সভাপতি শহীদ মনির এবং বাক্কো সভাপতি ওয়াহেদ শরীফ বক্তৃতা করেন।

 

          মন্ত্রী বেসিস এর আধুনিক ভার্সনের ওয়েব সাইট ও মোবাইল অ্যাপ প্রযুক্তি সম্পৃক্তদের জন্য খুবই কার্যকর একটি উদ্যোগ হিসেবে উল্লেখ করেন। তিনি ডিজিটাল প্রযুক্তি খাতের অন্যান্য ট্রেডবডিসমূহকে অনুরূপ ওয়েব সাইট তৈরির প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। সাবেক বেসিস ও বিসিএস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, করোনা মহামারি যেমনি দেখতে পেয়েছি তেমনি করোনা দেখিয়ে দিয়েছে ডিজিটালাইজেশনের প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি। তিনি বলেন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবটিক্স, আইওটি কিংবা বিগডাটা এনালাইসিসের মাধ্যমে জাপান, চীন ও দক্ষিণ কোরিয়া করোনাকে অনেকটাই আয়ত্তে আনতে সক্ষম হয়েছে। প্রযুক্তির ব্যবহারের বিষয়টি আমাদের গুরুত্ব দিয়ে দেখতে হবে।

 

          গত এগারো বছরে এরই ধারাবহিকতায় বাংলাদেশ অগ্রগতির অগ্রযাত্রায় মাইলফলক স্থাপন করেছে। দেশের অগ্রগতিকে আরও বেগবান করতে বেসিসসহ প্রযুক্তি সম্পৃক্ত ট্রেডবডিসমূহকে তিনি ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান। বেসিস ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সংগঠনটির শতকরা ৯০ ভাগ কাজ অটোমেশনের আওতায় আসবে। সদস্যগণ লগ ইন করে নিজ নিজ প্রোফাইল আপডেট করতে পারবেন।

 

#

শেফায়েত/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০২০/১৯১৮ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ৪৫৪৭ 

 

রাজনৈতিকভাবে ব্যর্থ হয়ে ষড়যন্ত্রের পথধারীদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকুন

                                                        ---তথ্যমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

 

          'রাজনৈতিকভাবে প্রতিপক্ষকে মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়ে যারা মৌলবাদ-ষড়যন্ত্র-গুজবের পথ বেছে নেয়, তাদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে' বলেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্‌মুদ।  

          আজ রাজধানীর কাকরাইলে তথ্য ভবন মিলনায়তনে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল পদক ২০২০ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সমসাময়িক প্রসঙ্গে তিনি একথা বলেন।

          প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দীন আহমেদের সভাপতিত্বে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, প্রেস কাউন্সিল সদস্যবৃন্দের মধ্যে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আবদুল মতিন খসরু এমপি এবং মোজাফফর হোসেন পল্টু, প্রেস কাউন্সিল পদক জুরিবোর্ডের চেয়ারম্যান ইকবাল সোবহান চৌধুরী এবং কাউন্সিল সদস্য নঈম নিজাম অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

          তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'কেউ স্বীকার করুক বা না করুক, সকল প্রতিবন্ধকতা ও সীমাবদ্ধতাকে উপড়ে ফেলে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। মানবিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক সকল সূচকে আমরা পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছি, অনেক সূচকে ভারতকেও পেছনে ফেলেছি। আইএমএফ, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের সমীক্ষায় এর প্রতিফলনে ভারত ও পাকিস্তানে তোলপাড় হচ্ছে, অথচ আমাদের দেশে কেউ কেউ স্বীকার করতে চায় না। আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ রাজনৈতিকভাবে সরকারকে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়ে মৌলবাদকে উস্কে দেয়, ষড়যন্ত্র-গুজবের পথ বেছে নেয়। এদের বিরুদ্ধে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।'

          এ সময় প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বৃদ্ধিকল্পে আইন যুগোপযোগী করা হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে গত এক যুগে গণমাধ্যমের অভূতপূর্ব বিকাশ ও কল্যাণের ইতিহাস তৈরি হয়েছে। এই অগ্রগতির সাথে সঙ্গতি রেখে প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রয়োজন। এজন্য প্রচলিত আইন যুগোপযোগী করার কাজ চলছে।

          গণমাধ্যমের ভূমিকাকে আরো বিস্তৃত করার আহ্বান জানিয়ে উন্নত জাতি গঠনের জন্য বস্তুগত উন্নয়নের সাথে আত্মিক উন্নয়নকে অপরিহার্য বলে বর্ণনা করেন ড. হাছান। আর সেজন্য নতুন প্রজন্মের মনন গঠনে গণমাধ্যম সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে, বলেন তিনি।

          তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, স্বাধিকার, গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একইসূত্রে গাঁথা। আর এই যোগসূত্র স্থাপনে গণমাধ্যম রাখতে পারে অনন্য ভূমিকা।

          অনুষ্ঠানে জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক তোয়াব খানকে আজীবন সম্মাননা, দি ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস সম্পাদক শাহ হোসেন ইমামকে প্রাতিষ্ঠানিক সম্মাননা, দৈনিক করতোয়া সম্পাদক মোজাম্মেল হককে আঞ্চলিক প্রাতিষ্ঠানিক সম্মাননা, দৈনিক সমকালের জাহিদুর রহমানকে গ্রামীণ সাংবাদিকতা, দৈনিক আমাদের সময়ের মোহাম্মদ ইউসুফ আরেফিনকে উন্নয়ন সাংবাদিকতা, দি ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেসের আরাফাত আরাকে নারী সাংবাদিকতা ও একই দৈনিকের আলোকচিত্রী শফিকুল ইসলামকে আলোকচিত্র সাংবাদিকতায় বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল পদক ২০২০ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়।

#

আকরাম/নাইচ/মোশারফ/আব্বাস/২০২০/১৮০০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                      নম্বর : ৪৫৪৬

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাসসংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

 ‌                  স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৪ হাজার ১২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৯০৮ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ৬০ হাজার ৬১৯ জন।

          গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৬ জন-সহ এ পর্যন্ত ৬ হাজার ৫৮০ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৭৫ হাজার ৮৮৫ জন।

#

হাবিবুর/নাইচ/মোশারফ/রেজাউল/২০২০/১৭৪৫ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                   নম্বর: ৪৫৪৫

চট্টগ্রামের উন্নয়নে সমন্বিতভাবে কাজ করতে এলজিআরডি মন্ত্রীর নির্দেশ

চট্টগ্রাম, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর) :

          সমন্বয়হীনতার কারণে চট্টগ্রামের উন্নয়ন যেন বাধাগ্রস্ত না হয় সেদিকে সজাগ থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম।

          মন্ত্রী আজ চট্টগ্রামে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে আয়োজিত চট্টগ্রামের উন্নয়ন, শিল্পায়ন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ  নির্দেশ দেন।

          মন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামের উন্নয়ন ত্বরান্বিত ও অপার সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হলে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, ওয়াসা, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এবং চট্টগ্রাম চেম্বার এন্ড কমার্সসহ সর্বস্তরের মানুষকে সম্পৃক্ত করার কোনো বিকল্প নেই। প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে সমন্বয় করে উন্নয়ন কর্মকান্ড করে যেতে হবে।

          চট্টগ্রামকে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের মূল কেন্দ্র হিসেবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, মিরসরাই থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত মেরিন ড্রাইভ নির্মিত হলে এ অঞ্চলের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বহুলাংশে বৃদ্ধি পাবে। মিরসরাই ইকোনমিক জোনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ জোন হবে এশিয়ার সেরা একটি জোন। অনেক দেশ এখানে বিনিয়োগের আগ্রহ দেখিয়েছে। এ জোনে পানি সরবরাহ যাতে বিঘ্নিত না হয় সে জন্য পানির উৎসগুলো যাচাই করা হবে।

          তাজুল ইসলাম বলেন, চট্টগ্রামের উন্নয়নে যে সকল প্রকল্প নেওয়া হয়েছে এবং যেসব প্রকল্প নেওয়া হবে সেগুলো অবশ্যই সমন্বয় করে নিতে হবে। সমন্বয়হীনতার কারণে যেন একই কাজ বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত না হয় সেদিকে দৃষ্টি রাখতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের প্রতি অত্যন্ত আন্তরিক বলেই এখানে অনেকগুলো প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। প্রয়োজনে জনগুরুত্ব সম্পন্ন আরো প্রকল্প নেয়া হবে। তবে স্বচ্ছতার সাথে সব প্রকল্পের কাজ শেষ করতে হবে।

          হালদা নদী থেকে পানি উত্তোলন করলে মৎস্য প্রজনন এবং জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে পড়া প্রসঙ্গে
মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, প্রস্তাবিত মোহরা ফেজ-২ প্রকল্পের জন্য যে সীমিত পানি উত্তোলন করা হবে তাতে জীববৈচিত্র্যের উপর প্রভাব পড়বে বলে সমীক্ষায় প্রতীয়মান হয়নি। তিনি বলেন, হালদা নদীতে মৎস্য প্রজনন এবং জীববৈচিত্র্যের পরিবেশ অক্ষুণ্ন রেখেই পানি উত্তোলন করা হবে। জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে পড়ে এমন কাজ করা হবে না।

          চট্টগ্রাম চেম্বার অভ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সভাপতি মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, বাংলাদেশ ইকোনমিক জোন অথরিটি’র নির্বাহী চেয়াম্যান পবন চৌধুরী। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক  খোরশেদ আলম সুজন, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালাম, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম এবং চট্টগ্রাম ওয়াসা বোর্ড চেয়ারম্যান ড. জাহাঙ্গীর আলম বক্তব্য রাখেন।

#

হায়দার/জুলফিকার/রেজ্জাকুল/শামীম/২০২০/১৬৫৪ ঘণ্টা                                                         

তথ্যবিবরণী                                                                                                          নম্বর : ৪৫৪৪

করোনা ভ্যাকসিনের প্রাপ্যতার ক্ষেত্রে গুণী সংস্কৃতিসেবীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে

                                                           সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর): 

 

          সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, করোনাকালে আমরা সংস্কৃতি জগতের অনেক গুণী শিল্পী, সাহিত্যিক ও সংস্কৃতিসেবীদের হারিয়েছি। সৃজনশীল এসব ব্যক্তি দেশ ও জাতির বিবেকস্বরূপ। বিভিন্ন সমস্য ও সংকট তাঁরা জাতিকে সঠিক দিকনির্দেশনা দিয়ে থাকেন। করোনার ভ্যাকসিন দেশে আসলে প্রথম ধাপে এসব গুণী সংস্কৃতিসেবীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

          প্রতিমন্ত্রী আজ রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলা মিলনায়তনে বাংলাদেশ কালচারাল রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন (বিসিআরএ) এর রজতজয়ন্তী উপলক্ষ্যে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উদ্বোধকের বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

          অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে অনলাইনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়া।

          বিসিআরএ এর সর্বাঙ্গীণ সাফল্য কামনা করে প্রধান অতিথি বলেন, সংগঠনটির নেতৃত্বে দেশ থেকে অপসংস্কৃতি দূরীভূত হোক, সুস্থ, মানবিক ও সংস্কৃতিবান্ধব সমাজ গড়ে ওঠুক।

          সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার শিল্পীদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। সেলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদানে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে গড়ে তোলা হয়েছে শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট, অন্যদিকে তথ্য মন্ত্রণালয়ে চলচ্চিত্র শিল্পীদের জন্য গড়ে তোলা হয়েছে চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট।

          বিসিআরএ এর সভাপতি অভি চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন  নাট্যজন মঞ্চসারথি আতাউর রহমান ও ভূমিসচিব মো. মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী।

          অনুষ্ঠানে কৃতি সংস্কৃতিকর্মী ও জাতীয় পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। 

          পরে প্রতিমন্ত্রী জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ঢাকা সাংবাদিক পরিবার বহুমুখী সমবায় সমিতি লিমিটেডের বার্ষিক সাধারণ সভা ও নির্বাচন ২০২০ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। 

#

ফয়সল/জুলফিকার/রেজ্জাকুল/মাসুম/২০২০/ ১৫০০ ঘণ্টা    

তথ্যবিবরণী                                                                                                     নম্বর : ৪৫৪৩

ভুটানের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন

ঢাকা, ১৩ অগ্রহায়ণ (২৮ নভেম্বর): 

          ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ড. লোটে শেরিং বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ. কে. আব্দুল মোমেনের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।

          ভুটানের প্রধানমন্ত্রী গতকাল পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে লেখা এক বার্তায় ড. মোমেনের করোনা আক্রান্ত হওয়ায় বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। যথাযথ চিকিৎসার মাধ্যমে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দ্রত আরোগ্য লাভ করে তাঁর দায়িত্ব পুনরায় শুরু করবেন বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন ড. লোটে শেরিং।

          এছাড়া ভুটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. টান্ডি দর্জি ও পররাষ্ট্রসচিব কিংয়ে সিংয়ে পৃথক বার্তায় ড. মোমেনের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন।

#

তৌহিদুল/জুলফিকার/রেজ্জাকুল/মাসুম/২০২০/ ১৫০০ ঘণ্টা 

Handout                                                                                                                               Number: 4542

Prime Minister’s Message on the International Day

of Solidarity with the Palestanian People

Dhaka, 28 November:

            Prime Minister Sheikh Hasina has given the following message on the occasion of International Day of Solidarity with the Palestinian People:

            "On the International Day of Solidarity with the Palestinian People, Bangladesh reiterates its unswerving support for the inalienable rights of the people of Palestine. We reaffirm our principled position in favor of the establishment of an independent, viable and contiguous Palestinian State within pre-1967 borders with East Jerusalem-Al Quds Al-Sharif as its capital under a two-state solution.

              In line with the guidance of Father of the Nation Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman and our constitutional obligation, Bangladesh always supports oppressed peoples throughout the world waging a just struggle against imperialism, colonialism or racialism. The Father of the Nation himself in his maiden speech delivered in the United Nations General Assembly in  1974 as well as in his statements in the 2nd Conference of OIC in 1974 and 4th NAM Summit in 1973, expressed Bangladesh’s  unflinching support for the legitimate right and just struggle of the Palestinian People.  Bangladesh has remained consistent in this position from the very beginning of its statehood. In fact, our own struggle for independence and the painful experience of the enduring worst form of genocide in 1971 inspired us to stand against injustice and oppression that the people of Palestine had been subjected to for many decades and advocate for an early resolution of this protracted crisis. Guided by a similar spirit, Bangladesh has given shelter to more than one million Rohingyas from Myanmar and has been urging the international community to work with Myanmar for repatriation of the Rohingyas and a sustainable solution to the Rohingya crisis.

        That the crisis of the Palestinian people lingers for ages is a stark failure of the international community including the United Nations. Bangladesh strongly opposes the use of force by the occupying forces against the Palestinian civilian population including women, children and the elderly. We call for an immediate cessation of the continued aggression, illegal settlements and demolitions of homes.

            On this day, Bangladesh joins the efforts of the international community to support Palestine and its territorial integrity as established through UN Security Council resolutions.

We call for an end to the repeated violation of human rights and international humanitarian principles in Palestine by the occupying Israeli forces. The international community must show urgency for the cause and redouble efforts seeking to find a durable, peaceful, and just solution to the Palestine crisis in accordance with the relevant UN resolutions, the Arab Peace Initiative, and the Quartet Road Map.

Joi Bangla, Joi Bangabandhu  

May Bangladesh Live Forever."

 

#

Emrul/Zulfikar/Rezzakul/Shamim/2020/1212 Hours                                                  

Handout                                                                                                                               Number: 4541

 

President’s Message on the International Day

of Solidarity with the Palestanian People

Dhaka, 28 November:

            President Md. Abdul Hamid has given the following message on the occasion of the International Day of Solidarity with the Palestanian People:

            "On the International Day of Solidarity with the Palestanian People, Bangladesh reiterates its unswerving supports for the inalienable rights of the people of Palestine. We reaffirm our principled position in favor of the establishment of an independent, viable and contiguous Palestinian State within pre-1967 borders with East Jerusalem-Al Quds Al-Sharif its capital under a two-state solution.

In line with the guidance of Father of the Nation Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman and our constitutional obligation, Bangladesh always supports oppressed people throughout the world waging a just struggle against imperialism, colonialism or racialism. The Father of the Nation in his maiden speech delivered in the United Nations General Assembly in  1974 as well as his statements in the 2nd Conference of OIC in 1974 and 4th NAM Summit in 1973 expressed Bangladesh’s  unflinching support for the legitimate right and just struggle of the Palestinian People.  Bangladesh has remained consistent in this position from the very beginning of its statehood.

In fact, our own struggle for independence and the painful experience of the worst form of genocide in 1971 inspired us to stand against injustice and oppression that people of Palestine had been subjected to for many decades and advocate for an early resolution of this protracted crisis. Guided by a similar spirit, Bangladesh has given shelter to more than one million Rohingyas from Myanmar and has been urging the international community to work with Myanmar for repatriation of the Rohingyas and a sustainable solution to the Rohingya crisis.

            Joi Bangla.                                          

            Khoda Hafez, May Bangladesh Live Forever."

#

Azad/Zulfikar/Rezzakul/Shamim/2020/10.44  Hours

                                                   

2020-11-28-21-48-3200c1817674227e200095dfbad41a11.docx 2020-11-28-21-48-3200c1817674227e200095dfbad41a11.docx

Share with :

Facebook Facebook