তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৪ অক্টোবর ২০২১

তথ্যবিবরণী ১১ অক্টোবর ২০২১

তথ্যবিবরণী                                                                                                            নম্বর : ৪৮৬৬

প্রকৃত ধার্মিক ব্যক্তি কখনোই অন্য ধর্মকে হেয় করে না

                                                ---ধর্ম প্রতিমন্ত্রী  

                                                                                                                                                                   

ভোলা , ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :      

 

          ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, প্রকৃত ধার্মিক ব্যক্তি কখনোই অন্য ধর্মকে হেয় করে না। প্রত্যেক ব্যক্তির নিকট তাঁর ধর্ম পবিত্র।  

          প্রতিমন্ত্রী আজ  ভোলা জেলা প্রশাসন সভাকক্ষে ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণার আওতায়  "আন্তঃ ধর্মীয় সংলাপ" অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।  

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, যারা মহান মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিল, যারা দেশের  বর্তমান উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় বিশ্বাস করে না,  তারাই দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনিষ্ট করে আশান্তি সৃষ্টি করতে চায়। এদের বিষয়ে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।  তিনি বলেন, তথ্য যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারে সবাইকে দায়িত্বশীল হতে হবে। সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে সমাজের দুষ্টু চক্র অনেক সময় ধর্মীয়  উন্মাদনা তৈরি করে। ধর্মীয় উন্মাদনা তৈরি করে কেউ যেন সমাজে অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা  সৃষ্টি করতে না পারে সে বিষয়ে দল-মত-ধর্ম নির্বিশেষে সকল জনগণকে সজাগ ও ঐক্যবদ্ধ  থাকতে হবে।

          প্রতিমন্ত্রী  বলেন, বিভিন্ন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের চাহিদার আলোকে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। গত ১২ বছরে সরকারের গৃহীত এ সকল প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে  সকল ধর্মীয় সম্প্রদায়ের ধর্মীয় বিধি-বিধান, উৎসব ও  অনুষ্ঠানাদি পালন সহজ ও উন্নত হয়েছে। তিনি বলেন, সরকার বৃহত্তর ধর্মীয় জনগোষ্ঠী মুসলমানদের কল্যাণে  প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে সারা দেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করছে। 

          ফরিদুল হক বলেন,  বর্তমান সরকার হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের স্থায়ী মূলধন ২১ কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০০ কোটি টাকায় উন্নীত করছেন। এই প্রথম “সমগ্র দেশে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মন্দির ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও সংস্কার” শীর্ষক  প্রকল্পের মাধ্যমে  ২৬২ কোটি ৯৫ লাখ টাকা ব্যয়ে সারা দেশে মোট ২৩৫১টি মন্দির ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সংস্কার কাজ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে ৫৪৭টি মন্দিরের নির্মাণ কাজ শতভাগ সম্পন্ন হয়েছে। 

          জেলা প্রশাসক মোঃ তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন  পুলিশ সুপার ভোলা সরকার মোহাম্মদ কায়সার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলজার আহমদ, নির্বাহী প্রকৌশলী
মোঃ শরীফ উদ্দিন, জেলার প্রেস ক্লাবের প্রতিনিধি, ইমাম সমিতি, আলীয়া মাদ্রাসা, কওমি মাদ্রাসার প্রতিনিধি, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের প্রতিনিধিও পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের ভোলা শাখার প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন। 

          এর আগে সকালে ভোলা সদর মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র সম্মেলন কক্ষে  অনুষ্ঠিত "ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ" অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন। 

#

আনোয়ার/পাশা/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/২২:২৫ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                           নম্বর : ৪৮৬৫

 

জীবিত বরেণ্য ব্যক্তিদের স্মরণ  ও শ্রদ্ধা জানানোর উদ্যোগ নিয়েছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়

                                                                                                                        --- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

                                                                              

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :    

          সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, প্রয়াতদের পাশাপাশি জীবিত বরেণ্য ব্যক্তিদের স্মরণ ও শ্রদ্ধা জানানোর উদ্যোগ নিয়েছে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়। জীবিত বরেণ্য ব্যক্তিদের জীবন ও কর্ম নিয়ে নিয়মিত সভা ও সেমিনার আয়োজনের মাধ্যমে তাঁদের স্মরণ ও শ্রদ্ধা জানানোর জন্য সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতাভুক্ত প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ও জাতীয় জাদুঘরকে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে এসব গুণিজন ও বরেণ্য ব্যক্তিবর্গের জীবনকালেই তাঁদের জীবন ও কর্মের যথাযথ স্বীকৃতি প্রদান করা যাবে।

 

          প্রতিমন্ত্রী আজ  বাংলা একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে খ্যাতিমান লেখক ও গবেষক অধ্যাপক গোলাম সামদানী কোরায়শীর ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বাংলা একাডেমি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

          প্রধান অতিথি বলেন, অধ্যাপক গোলাম সামদানী কোরায়শী ছিলেন ছিলেন একজন কিংবদন্তি, বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী ব্যক্তিত্ব। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য তিনি উদাহরণস্বরূপ। তিনি বলেন, গোলাম সামদানীর জীবন ও কর্ম নিয়ে গবেষণার প্রয়োজন। তাঁকে নিয়ে গবেষণার উদ্যোগ নিলে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় হতে পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান করা হবে। প্রতিমন্ত্রী এসময় গোলাম সামদানী কোরায়শীর পৈত্রিক ভিটা ময়মনসিংহের গৌরীপুরে একটি স্মৃতিকেন্দ্র স্থাপনের ঘোষণা দেন।

 

          বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচনা করেন বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন ও অধ্যাপক বদিউর রহমান। স্বাগত বক্তৃতা করেন বাংলা একাডেমির সংস্কৃতি, পত্রিকা ও মিলনায়তন বিভাগের পরিচালক নূরুন্নাহার খানম। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন গোলাম সামদানী কোরায়শীর জ্যেষ্ঠ পুত্র ইয়াজদানী কোরায়শী কাজল।

 

#

ফয়সল/পাশা/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/২১:৫৮ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ৪৮৬৪

 

একুশে পদক ও স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রখ্যাত নাট্যকার, অভিনেতা,

লেখক, শিক্ষক ড. ইনামুল হকের মৃত্যুতে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীগণের শোক   

                                                                                                                                                                                  

ঢাকা,  ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :    

 

          একুশে পদক ও স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত প্রখ্যাত নাট্যকার, অভিনেতা, লেখক, শিক্ষক ড. ইনামুল হকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ, পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান,  শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, খাদ্য মন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী, পরিবেশমন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন, বিজ্ঞান ও প্রযু্ক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্‌মুদ চৌধুরী, তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ মুরাদ হাসান, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ সায়েদুল ইসলাম ।

 

          পৃথক শোকবার্তায় তাঁরা মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

#

সাহেদ/পাশা/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/২১৪০ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ৪৮৬৩

ম্যারিজ এন্ড ডিভোর্স রেজিস্ট্রেশন সিস্টেম শীঘ্রই উন্মুক্ত করা হচ্ছে

                                                        -- আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :

          তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক বলেছেন, আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে ম্যারিজ এন্ড ডিভোর্স রেজিস্ট্রেশনের জন্য অনলাইন সিস্টেম ‘বন্ধন.গভ.বিডি’ শীঘ্রই উন্মুক্ত করা হবে। তিনি বলেন, এ অনলাইন প্ল্যাটফর্ম চালু হলে বাল্যবিবাহ-সহ অনেক সমস্যাই সমাধান হবে।

          প্রতিমন্ত্রী আজ মহাখালী ব্র্যাক সেন্টার মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক কন্যাশিশু দিবস ২০২১ উপলক্ষ্যে ডিজিটাল প্রজন্ম আমাদের প্রজন্ম : বাল্যবিবাহ ও শিশুশ্রম প্রতিরোধে প্রযুক্তির ভূমিকা শীর্ষক সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করতে হলে প্রথমেই নারী সমাজের সম্মান ও মর্যাদা নিশ্চিত করতে হবে। চিন্তার মনস্তাত্ত্বিক পরিবর্তন ছাড়া কোনো প্রযুক্তি বা প্রকল্প পরিকল্পনা কাজে লাগবে না।

          প্রতিমন্ত্রী আন্তরাকিতা ও ভালোবাসার মাধ্যমে টেকসই প্রযুক্তি কাঠামো সৃষ্টি করে দেশে কন্যাশিশুর প্রতি বৈষম্য প্রশমনে সকলের সচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার করার শুরুতেই তিনি একজন ছেলের সঙ্গে একজন মেয়েকে ফ্রন্ট ডেস্কে নিয়োগ নিশ্চিত করা হয়েছিল। শেখ হাসিনা কেবল ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকারই নন; তিনি আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি।

          পলক আরো বলেন, সরকারের মাস্টার প্ল্যানের কারণেই আজকের ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ফলে মহামারিতেও ৭০ শতাংশ মানুষ অনলাইনে সংযুক্ত থেকে শিক্ষাকার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।

          ব্রাকের জেন্ডার জাস্টিস এন্ড ডাইভারসিটি প্রোগ্রামের নির্বাহী পরিচালক আসিফ খানের সভাপতিত্বে সংলাপে অন্যান্যের মাঝে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ পুলিশের ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি সার্ভিস শাখার এডিশনাল ডিপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল মোঃ তবারক উল্লাহ, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ড. নোভা আহমেদ, আইএলও বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল স্পেশালিস্ট এন্ড প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মনিরা সুলতানা, ম্যারেজ রেজিস্ট্রার সমিতির সভাপতি মুহাম্মদ আবদুল ওয়াহেদ, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক জেন্ডার জাস্টিসের ডাইভারসিটি প্রোগ্রামের পরিচালক নবনিতা চৌধুরী প্রমুখ।

#

শহিদুল/পাশা/নাইচ/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/২২০০ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                              নম্বর : ৪৮৬২

 

ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর পূজামণ্ডপ পরিদর্শন

                                                                                                                                                                                      

ঢাকা,  ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :    

 

          ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান আজ শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে ভোলা জেলা শহরে অবস্থিত  শ্রী শ্রী রাধা গোবিন্দ জিউর মন্দিরের পূজামন্ডপ পরিদর্শন  করেন।

 

          এ সময় ভোলার জেলা প্রশাসক মোঃ তৌফিক-ই-চৌধুরী,  পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সারসহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি,  ভোলা জেলা পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দসহ ভক্ত অনুসারীগণ উপস্থিত ছিলেন।                                                  

 

#

আনোয়ার/পাশা/নাইচ/রফিকুল/আব্বাস/২০২১/২১০৭ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ৪৮৬১

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বৈশ্বিক লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ধনী দেশগুলোকে নেতৃত্ব দিতে হবে

                                                                                                                                -- পরিবেশমন্ত্রী

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :

          পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় সকল বৈশ্বিক উদ্যোগে উন্নত দেশ বিশেষ করে জি-২০ কে সক্রিয়ভাবে নেতৃত্ব প্রদান করতে হবে। বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে ক্ষতিকর গ্যাসের নিঃসরণ কমানোর লক্ষ্যে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করতে হবে। মন্ত্রী বলেন, প্যারিস জলবায়ু চুক্তি অনুযায়ী বৈশ্বিক গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধি ১ দশমিক ৫ ডিগ্রিতে সীমাবদ্ধ রাখতে ধনী দেশগুলোর সাথে সকল দেশেরই ন্যাশনালি ডিটারমাইন্ড কন্ট্রিবিউশান (এনডিসি) ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি করতে হবে।

          মন্ত্রী আজ ভুটানে অনুষ্ঠিত স্বল্পোন্নত দেশগুলোর মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনে তাঁর ঢাকাস্থ সরকারি বাসভবন হতে অনলাইনে যুক্ত হয়ে এসব কথা বলেন। সম্মেলনে বিভিন্ন স্বল্পোন্নত দেশের পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ বক্তৃতা করেন।

          মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ চলতি বছরের ২৬ শে আগস্ট হালনাগাদকৃত ও উন্নত এনডিসি জমা দিয়েছে যেখানে ২০৩০ সালের মধ্যে ২১ দশমিক ৮৫ শতাংশ কার্বন ডাই-অক্সাইড গ্যাসের নির্গমন হ্রাসের উল্লেখ করা হয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ন্যাশনাল এডাপটেশন প্ল্যান চূড়ান্ত করার প্রক্রিয়া চলমান আছে। বিশ্বব্যাপী অভিযোজন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণের বিষয়টি COP-27 এ বিবেচনার জন্য  COP-27 এ একটি আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরু করা উচিত বলে বাংলাদেশ মনে করে।

          শাহাব উদ্দিন বলেন, বিদ্যমান সমস্যাগুলোর সমাধান করে প্যারিস জলবায়ু চুক্তি অনুযায়ী বার্ষিক ১০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের সহায়তা যাতে সহজে অনুন্নত দেশগুলো পেতে পারে সে বিষয়ে GCF এবং GEF কে  নির্দেশনা দেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আর্টিকেল ৬ বিষয়ক আলোচনা চূড়ান্তকরণ এবং  প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়নের জন্য এসংক্রান্ত প্রয়োজনীয় বিধিমালা প্রণয়ন করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, আর্টিকেল ৬ মেকানিজমে কার্যকরী অংশগ্রহণের জন্য স্বল্পোন্নত দেশগুলোর সক্ষমতা বৃদ্ধি করা উচিত।

#

দীপংকর/পাশা/নাইচ/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/২০৪৫ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ৪৮৬০

 

টেলিভিশনে স্ক্রল আকারে প্রচারের জন্য

সকল ইলেকট্রনিক মিডিয়া

 

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :  

 

          সরকারি-বেসরকারি টিভি চ্যানেলসহ সকল ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় নিম্নোক্ত বিষয়টি স্ক্রল আকারে প্রচারের জন্য অনুরোধ করা হলো :   

 

 

          মূলবার্তা :  

 

        ‘মুজিববর্ষের প্রতিশ্রুতি জোরদার করি দুর্যোগ প্রস্তুতি’-দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ।   

#

 

রুজিনা সুলতানা/পাশা/নাইচ/রফিকুল/রেজাউল/২০২১/২০০৪ ঘণ্টা 

তথ্যবিবরণী                                                                                                             নম্বর : ৪৮৫৯

‘আমার গ্রাম আমার শহর’ বাস্তবায়নে পাশে থাকবে এডিবি

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :

          প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দর্শন ও আওয়ামী লীগের নির্বাচনি ইশতেহার ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ বাস্তবায়নে অর্থনৈতিকসহ সার্বিক সহযোগিতা দিয়ে পাশে থাকার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক- এডিবি।

          আজ মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশে নবনিযুক্ত এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর ইডিমোন গিনটিন (Edimon Ginting) এবং বিদায়ী কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন পারকাশ স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলামের সাথে সাক্ষাৎ করতে এসে এ কথা জানান।

          শহরের সকল সুযোগ-সুবিধা গ্রামে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে বর্তমান সরকার 'আমার গ্রাম আমার শহর' বাস্তবায়নের নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। সরকারের এই বৃহৎ কার্যক্রমে এডিবি অর্থায়নসহ কারিগরি সহযোগিতা প্রদান করবে বলে মন্ত্রীকে অবহিত করেন বিদায়ী ও নব যোগদানকৃত কান্ট্রি ডিরেক্টর।

          এসময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বাংলাদেশে অবস্থানকালে যথাযথ দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে দেশের উন্নয়নে সহযোগিতা করার জন্য বিদায়ী কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন পারকাশকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এছাড়া, নব যোগদানকৃত কান্ট্রি ডিরেক্টরও বাংলাদেশকে সার্বিক সহযোগিতা করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

          এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক-এডিবিকে বাংলাদেশের বিশ্বস্ত উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের অবকাঠামো উন্নয়ন, অর্থনৈতিক ও সামাজিক খাতে ব্যাপক অবদান রেখে যাচ্ছে। তাদের এই সহযোগিতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

          সাক্ষাৎকালে স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এবং মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

#

হায়দার/পাশা/নাইচ/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/১৯৪৫ঘণ্টা   

তথ্যবিবরণী                                                                                                            নম্বর : ৪৮৫৮

 

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে

                                                -- প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

 

সিলেট, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :  

 

          প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশে অতীতের ন্যায় এখনো সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিরাজমান।

 

          মন্ত্রী বলেন, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। তিনি প্রতিটি মণ্ডপের পূজারিদের কাছে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা জানিয়ে দেওয়ার আহ্বান করেন। 

 

          মন্ত্রী আজ জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে উপজেলার সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে এক শুভেচ্ছা বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

          জৈন্তাপুর পূজা উদ্‌যাপন পরিষদের সভাপতি নিপেন্দ্র কুমার দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল আহমদ।

 

          এতে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুসরাত আজমেরী হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহেদ আহমদ, পুজা উদ্‌যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দুলাল চন্দ্র দাস প্রমুখ। 

 

          এরপর মন্ত্রী উপজেলার প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইলচেয়ার বিতরণ করেন। 

#

রাশেদুজ্জামান/পাশা/নাইচ/রফিকুল/রেজাউল/২০২১/১৯২০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                               নম্বর : ৪৮৫৭

কৃষিপণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধিতে সরকার অত্যন্ত গুরুত্ব দিচ্ছে

                                                                          -- কৃষিমন্ত্রী

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :

            কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, ‘দেশের শাকসবজি, আলু ও ফলমূল রপ্তানির সম্ভাবনা অনেক। বিভিন্ন ফসল ও খাদ্যে আমরা এখন উদ্বৃত্ত। এ উদ্বৃত্ত ফসল সারা পৃথিবীতে আমরা রপ্তানি করতে চাই। সেজন্য, রপ্তানির বাধাসমূহ দূর করতে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। ইতোমধ্যে আমাদের প্রস্তুতি  প্রায় সমাপ্ত। গত ১ বছরে কৃষিপণ্যের রপ্তানি অনেকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। সামনের দিনগুলোতে রপ্তানির পরিমাণ আরো বৃদ্ধি পাবে।’

          আজ ঢাকার ফার্মগেটে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) মিলনায়তনে শাকসবজি, আলু, ফলমূল ও প্রক্রিয়াজাত কৃষিপণ্য রপ্তানি বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রণীত খসড়া রোডম্যাপের ওপর মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          কৃষিপণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধির জন্য কৃষি মন্ত্রণালয় গত জুনে কমিটি গঠন করে। এই কমিটি শাকসবজি, ফলমূল রপ্তানির জন্য ১টি ও আলু রপ্তানির জন্য ১টি মোট ২টি রোডম্যাপ প্রণয়ন করে।

            সভায় সভাপতিত্ব করেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ মেসবাহুল ইসলাম। তিনি বলেন, কৃষিপণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধি করতে পারলে একদিকে কৃষকেরা লাভবান হবে, অন্যদিকে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভব হবে। সে লক্ষ্যে কৃষি মন্ত্রণালয় কাজ করে যাচ্ছে।

          অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আসাদুল্লাহ এবং বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ রুহুল আমিন তালুকদার। এ সময় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/দপ্তর সংস্থার প্রতিনিধি, রপ্তানিকারক, প্রক্রিয়াজাতকারী ও কৃষক প্রতিনিধিরা মতবিনিময় করেন।

          খসড়া রোডম্যাপ উপস্থাপনায় তারা শাকসবজি, আলু, ফলমূল ও প্রক্রিয়াজাত কৃষিপণ্য রপ্তানি বৃদ্ধির ক্ষেত্রে প্রধান প্রধান সমস্যা চিহ্নিত করার পাশাপাশি তা সমাধানের লক্ষ্যে বেশ কিছু সুপারিশ প্রস্তাব করেন। এই সুপারিশসমূহ বাস্তবায়ন করা গেলে কৃষিপণ্য রফতানির ক্ষেত্রে ২০২১-২২ সালে ১ দশমিক ৬৩৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (সম্ভাব্য) এবং ২০২২-২৩ সালে (জুন পর্যন্ত) ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (সম্ভাব্য) আয় করা সম্ভব হবে। আলু রপ্তানির ক্ষেত্রে ২০২২ সালে ৮০ হাজার টন, ২০২৩ সালে ১ লাখ ২০ হাজার টন, ২০২৪ সালে ১ লাখ ৮০ হাজার এবং ২০২৫ সালে ২ লাখ ৫০ হাজার টন আলু রপ্তানি করা সম্ভব বলে খসড়া রোডম্যাপে উল্লেখ করা হয়েছে।

#

কামরুল/পাশা/নাইচ/রফিকুল/জয়নুল/২০২১/১৯৩৫ঘণ্টা 

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                            নম্বর : ৪৮৫৬

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :  

            স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩ হাজার ১৯৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৯৯ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৬২ হাজার ৯৫৮ জন। 

 

          গত ২৪ ঘণ্টায় ১১ জন-সহ এ পর্যন্ত ২৭ হাজার ৬৯৯ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

 

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ২৪ হাজার ৪৬৭ জন।

#

ফেরদৌস/পাশা/নাইচ/রফিকুল/২০২১/১৯০০ ঘণ্টা

Handout                                                                                                                      Number :  4855

Developed countries should lead global efforts to achieve climate goals
                                                                                -- Environment Minister

Dhaka, 11 October : 

            The Environment, Forest and Climate Change Minister Md. Shahab Uddin said Bangladesh calls upon the countries having greater responsibilities and significant capabilities particularly G20 countries to lead the global efforts in keeping 1.5°C alive. The world leaders should also put emphasize on the progress of putting forward long term low emission development strategy. He said countries also must keep enhancing their 2030 Nationally Determined Contributions (NDCs) and put them forward in line with progression and raising ambition to put the world on track towards achieving 1.5°C global goal through attaining 45% global emission reduction by 2030 and net zero by 2050.

            Environment Minister said this joining virtually from his official residence in Dhaka in the LDC Ministerial Meeting held Monday (11 October) at Thimphu, Bhutan. Environment and Climate Change Ministers and delegates of different LDC countries and international organizations delivered speeches in the occasion.

            Environment Minister said Bangladesh has enhanced both unconditional and conditional contributions amounting to 89.47 million tons CO2 equivalent, which is 21.85% emission reductions from Business as Usual by 2030 in its updated NDCs submitted in August 26th this year. He said, Bangladesh is in the process of finalizing our NAPs. Bangladesh supports to set up a formal process by COP26 in order to come up with concrete recommendations on global adaptation goal for consideration by COP27.

            The Minister said under long-term finance, tracking the progress on delivering USD$100 billion from 2020 and providing clarity on how the USD$100 billion each year through to 2024 will be delivered is an important agenda at COP26.  Guidance need to be given to the GCF and GEF, resolving the critical challenges that vulnerable countries particularly LDCs face with regards to accessing the GCF and GEF need to be duly reflected.

            Shahab Uddin said completing the discussions under Article 6 and adopt necessary rules are very critical for the implementation of the Paris Agreement. We strongly feel that all provisions of Article 6 must be realized in the context of Article 6.1, which states that the purpose of such mechanisms is to allow for higher ambition and promote environmental integrity. We underscore the need of enhancing the capacity of LDCs for the effective participation of Article 6 mechanisms. Bangladesh feels that the world leaders must determine a common time frame for NDCs, which is consistent and compatible to 5-year unique cycle of NDC communication and global stocktake under Paris Agreement.

#

Dipankar/Pasha/Nice/Rafiqul/Joynul/2021/1900hours

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৪৮৫৪

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

ঢাকা, ২৬ আশ্বিন (১১ অক্টোবর) :

          আজ জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের কার্যনির্বাহী কমিটির (বাজেট) সভা পরিষদের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে।  উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের চেয়ারম্যান ও যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল। সভায় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আখতার হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

          সভায় গত ২০২০-২১ অ&l

2021-10-14-06-48-0285ae6d9349a38f03717fd5ac727833.doc 2021-10-14-06-48-0285ae6d9349a38f03717fd5ac727833.doc

Share with :

Facebook Facebook