তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৫ জুন ২০১৮

তথ্যবিবরণী ৫ জুন ২০১৮

তথ্যবিবরণী                                                                                নম্বর :   ১৬৭০
 
বর্তমান সরকারের নেতৃত্বে দেশের অর্থনীতির ভিত্তি মজবুত হয়েছে
                                                         --- তথ্যমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :
 
তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘জঙ্গিবাদ ও আগুন সন্ত্রাস মোকাবিলা করেও বড় বাজেট দেয়ার সক্ষমতা অর্জন করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার। আর বাজেট বাস্তবায়নে পাঁচ ভাগ অপূর্ণতাকে বড় দেখিয়ে ৯৫ ভাগ সফলতাকে আড়াল করা যায় না।’
 
আজ রাজধানীর যাত্রাবাড়িতে ধলপুর কমিউনিটি সেন্টারে জাসদ ঢাকা-পূর্ব সভাপতি শহীদুল ইসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত ইফতারপূর্ব সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আসন্ন বাজেটের বিষয়ে বিএনপি’র আগাম সমালোচনার জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 
 
মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের অর্থনীতির পায়ের নিচের মাটি যে মজবুত হয়েছে, প্রবৃদ্ধির হার সাড়ে সাত শতাংশে এবং স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়াসহ সব সূচকেই তার প্রমাণ মেলে। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকারের দূরদর্শী উন্নয়নের সুফল যেমন মানুষ এখনই পাচ্ছে, সেইসাথে ভবিষ্যতের ভিত্তিপথও তৈরি হচ্ছে।’ 
 
#
 
আকরাম/ফারহানা/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২১০০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                      নম্বর :  ১৬৬৯
 
হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ৯৮তম বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত
 
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) : 
 
ধর্মমন্ত্রী ও হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে আজ ধর্মমন্ত্রীর বেইলী রোডের বাসভবন সভাকক্ষে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ৯৮তম বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত হয় । 
 
সভায়  জানানো হয় ট্রাস্টের অনুদানের চেক স্বাক্ষরকারী হিসেবে ইতিপূর্বে সচিব ও ভাইস চেয়ারম্যানের যৌথ স্বাক্ষরে পরিচালিত হত। ভাইস চেয়ারম্যান পরিবর্তন হওয়ায় এবং সচিব নতুন যোগদান করায় চেক স্বাক্ষরের ক্ষেত্রে পরিবর্তন এনে নতুন ভাইস চেয়ারম্যান ও সচিবকে যৌথ স্বাক্ষরকারী হিসেবে মনোনয়ন প্রদান করা হয়। 
 
  মন্ত্রণালয়ে দাখিলকৃত ২১টি কর্মসূচির মধ্যে ইতিমধ্যে তিনটি কর্মসূচির বিপরীতে ৩০ জুন ২০১৮ পর্যন্ত সাত কোটি ছয় লাখ চল্লিশ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলে সভায় আরো জানানো হয়। এর মধ্যে কর্মসূচিসমূহের স্টিয়ারিং কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানুয়ারি  হতে ডিসেম্বর ২০১৮ সময়ে তিনটি কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য সময়সীমা নির্ধারিত রয়েছে। তিনটি কর্মসূচি হলো গোপালগঞ্জ, চট্টগ্রাম, চাঁদপুর, হবিগঞ্জ ও ঢাকা জেলার মন্দিরসমূহের মেরামত, সংস্কার ও উন্নয়ন বিষয়ক। কর্মসূচির সরকারি আদেশ অর্থ মন্ত্রণালয় জারি করেছে। বর্তমানে অর্থ ছাড়করণের জন্য ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছে। এখনও অর্থ ছাড় হয়নি। 
 
এ বিষয়ে সভায়  বিস্তারিত আলোচনা শেষে সিদ্ধান্ত হয় একটি প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে দ্রুততম সময়ে  অবশিষ্ট  ১৮টি কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে। 
 
সভায় হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান শ্রী সুব্রত পাল, ট্রাস্টের ট্রাস্টিবৃন্দ এবং হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব নিরঞ্জন দেবনাথ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
 
#
 
আনোয়ার/ফারহানা/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/২০৩০ ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর : ১৬৬৮ 
 
২০১৬ সালের সিআইপিদেরকে সম্মাননা কার্ড প্রদান
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেছেন, প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রেরিত রেমিটেন্স প্রবাহের ধারাবাহিকতায় অর্থনৈতিক উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ বিশ্বের মানচিত্রে একটি মর্যাদাপূর্ণ রাষ্ট্র হিসেবে নিজেকে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছে। তিনি প্রবাসী বাংলাদেশিদের বৈধ চ্যানেলে রেমিটেন্স প্রেরণকারী ও বাংলাদেশি পণ্য আমদানিকারকদের পাশাপশি দেশে শিল্পক্ষেত্রে বিনিয়োগ করার আহ্বান জানান। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পূর্বের যে কোনো সময়ের চেয়ে দেশে এখন শিল্পক্ষেত্রে বিনিয়োগের সুষ্ঠু পরিবেশ বিরাজ করছে। তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে রেমিটেন্স-এর প্রবাহ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং বৈদেশিক রিজার্ভ বৃদ্ধি পেয়েছে। বৈধপথে রেমিটেন্স প্রেরণ করলে বৈদেশিক রিজার্ভের পরিমাণ আরো বৃদ্ধি পাবে। 
আজ ঢাকার ইস্কাটনে ২০১৬ সালের জন্য নির্বাচিত বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি) অনিবাসী বাংলাদেশিদেরকে সম্মাননা কার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 
অনুষ্ঠানে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. নমিতা হালদার এনডিসি’র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহ্রিয়ার আলম। প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিরা বাংলাদেশের সামগ্রিক উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অবদান রাখছেন। তিনি আরো বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে সিআইপিগণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন। অনুষ্ঠানে সিআইপিগণের পক্ষ থেকে সম্মানিত সিআইপি সংযুক্ত আরব আমিরাতের মোছাম্মৎ জেসমিন আক্তার ও মোহাম্মদ মাহাতবুর রহমান বৈধ চ্যানেলে সর্বাধিক রেমিটেন্স প্রেরণকারী (অনিবাসী বাংলাদেশি) হিসেবে বক্তব্য রাখেন। সংযুক্ত আরব আমিরাতের মোহাম্মদ সেলিম বিদেশে বাংলাদেশি পণ্য আমদানিকারক (অনিবাসী বাংলাদেশি) হিসেবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। 
বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ সরকার ২০১৬ সালের জন্য ‘বাংলাদেশে বৈধ চ্যানেলে সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণকারী অনিবাসী বাংলাদেশি’ ক্যাটাগরিতে ২৯ জন এবং ‘বিদেশে বাংলাদেশি পণ্যের আমদানিকারক অনিবাসী বাংলাদেশি’ ক্যাটোগরিতে ছয় জনসহ ৩৫ জনকে বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (অনিবাসী বাংলাদেশি) হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে। তবে শিল্পক্ষেত্রে সরাসরি বিনিয়োগ ক্যাটাগরিতে কেউ আবেদন না করায় এক্ষেত্রে কাউকে সিআইপি সম্মাননা প্রদান করা যায়নি। ২০১৬ সালের নির্বাচিত বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, সংযুক্ত আরব আমিরাত হতে ১৩ জন, ওমান থেকে ছয় জন, যুক্তরাজ্য থেকে তিন জন, কাতার থেকে তিন জন এবং অস্ট্রেলিয়া, জাপান, সিঙ্গাপুর ও হংকং থেকে এক জন করে সর্বাধিক বৈধ চ্যানেলে বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণকারী অনিবাসী বাংলাদেশি সিআইপি নির্বাচিত হয়েছে। বিদেশে বাংলাদেশি পন্য আমদানিকারক অনিবাসী বাংলাদেশি হিসেবে ছয় জন সিআইপির মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুই জন এবং ওমান, রাশিয়া, কুয়েত ও কাতার থেকে এক জন করে নির্বাচিত হয়েছেন। এখানে উল্লেখ্য তিনটি ক্যাটাগরির মধ্যে শিল্পক্ষেত্রে বিনিয়োগকারী ক্যাটাগরিতে ২০ জন, বৈধ চ্যানেলে সর্বাধিক বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণকারী ক্যাটাগরিতে ৫০জন এবং বিদেশে বাংলাদেশি পণ্য আমদানিকারক ক্যাটাগরিতে ২০জনকে সিআইপি নির্বাচন করার সুযোগ রয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের দপ্তর ও সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 
#
জাহাঙ্গীর/মাহমুদ/ফারহানা/রফিকুল/জয়নুল/২০১৮/২০৩০ ঘণ্টা 
তথ্যবিবরণী                                                                                      নম্বর : ১৬৬৭
 
গ্যাস অনুসন্ধানকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে
                            -- বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) : 
 
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গ্যাস অনুসন্ধানকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। নতুন গ্যাস অনুসন্ধানের জন্য ১০৮টি কূপ খনন, এলএনজি সরবরাহ, প্রাকৃতিক গ্যাসের বিকল্প হিসেবে এলপিজি’র ব্যবহার সম্প্রসারণ ইত্যাদি কার্যক্রম দ্রুততার সাথে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। 
 
প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় সোনারগাঁও হোটেলে শেভরন আয়োজিত ‘স্টেকহোল্ডার ইভেন্ট’-এ বক্তব্যকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতকে অগ্রাধিকার দিয়ে সরকার যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার পরিকল্পনা নিয়েছে তা পরিকল্পনামাফিক এগুচ্ছে। দেশের ৯০ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছে। সরকার বিশেষ ভর্তুকি দেয়ায় ৫২ লাখ সোলার হোম সিস্টেম স্থাপিত হয়েছে। চর এলাকায় সোলার হোম সিস্টেম ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তিনি এসময় শেভরনের কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, জ্বালানি নিরাপত্তা আরো পোক্ত করতে সকল অপারেটরদের সাথে নতুন নতুন উদ্যোগ নিয়ে কাজ করতে হবে। 
 
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব আবু হেনা মোঃ রাহমাতুল মুনিম, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মোঃ ফয়জুল্লাহ, বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া বার্নিকাট ও শেভরন বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট কেভিন লিয়ন (কবারহ খুড়হ) বক্তব্য রাখেন। এসময় শেভরন বাংলাদেশের নবনিযুক্ত প্রেসিডেন্ট নেইলি মেনজিস (ঘবরষ গবহুরবং)-কে সবার সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়।
 
#
 
আসলাম/মাহমুদ/সঞ্জীব/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮৪০ ঘণ্টা  
 
তথ্যবিবরণী                                                                                        নম্বর : ১৬৬৬
 
জেন্ডার সমতা নিশ্চিতকরণে দৃঢ় রাজনৈতিক সদিচ্ছার প্রয়োজন 
                                              -- শ্রম প্রতিমন্ত্রী
 
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) : 
 
        শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক বলেছেন, জীবন-জীবিকার সকল স্তরে জেন্ডার সমতা নিশ্চিতকরণে দৃঢ় রাজনৈতিক সদিচ্ছার প্রয়োজন। বিশ^ব্যাপী সব ধরনের কাজের ক্ষেত্রে জেন্ডার সমতা অর্জনে সকলকে অঙ্গীকার করতে হবে।
 
      প্রতিমন্ত্রী আজ জেনেভায় আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও)-এর ১০৭তম আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনের প্লেনারি সেশনের বক্তৃতায় এ কথা বলেন। 
 
        প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিশে^র বিভিন্ন দেশ জেন্ডার অগ্রাধিকার প্রদানে যথেষ্ট অগ্রগতি অর্জন করেছে। তারপরও জেন্ডার বৈষম্য দূরীকরণে শ্রমবাজারে এবং সামাজিক ব্যবস্থায় কিছু ঝুঁকি রয়েই গেছে। এ সকল ঝুঁকি দূরীকরণে আইএলও’র নেয়া কর্মক্ষেত্রে নারী শতবর্ষী উদ্যোগ ভালো ফল দেবে। এছাড়া নারীদের জীবনের ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে ‘এজেন্ডা-২০৩০’ সহায়ক হবে। 
 
        প্রতিমন্ত্রী তাঁর বক্তৃতায় বাংলাদেশের নারীদের উন্নয়নে সরকারের নেয়া নানাবিধ উদ্যোগের বর্ণনা দেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ দৃঢ়ভাবে বিশ^াস করে মোট জনগোষ্ঠীর অর্ধেককে উন্নয়ন কর্মকা-ের বাইরে রেখে দেশের সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয়। এজন্য সরকার জাতীয় উন্নয়ন নীতিমালা প্রণয়ন করেছে, নারীদের জন্য সমান সুযোগ ও অধিকার নিশ্চিতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।  তিনি বলেন, কর্মক্ষেত্রে নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত ও আবাসন সুবিধার জন্য ডরমেটরি নির্মাণ এবং কারখানাগুলোতে ডে-কেয়ার সেন্টার চালু করা হয়েছে। বিশে^র দ্বিতীয় বৃহত্তম গার্মেন্টস রপ্তানিকারক দেশ হিসেবে বাংলাদেশে এই গুরুত্বপূর্ণ সেক্টরের শ্রমিকদের ৯০ শতাংশই নারী।
      
গত ২৮ মে থেকে শুরু হওয়া চলমান আইএলও’র ১০৭তম আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলন  আগামী ৯ জুন পর্যন্ত চলবে। আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের নেতৃত্বে শ্রম প্রতিমন্ত্রী ছাড়াও শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মোঃ রুহুল আমিন ও রেজাউল হক চৌধুরী, আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহীদুল হক, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব আফরোজা খানসহ সরকারি ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান এবং বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের ৪০ জন সদস্য এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছেন।
 
#
 
আকতারুল/মাহমুদ/পারভেজ/সেলিমুজ্জামান/২০১৮/১৮৩০ ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                         নম্বর :  ১৬৬৫
 
স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতাকে সর্বাধিক প্রাধান্য দিতে হবে
                                          --- স¦াস্থ্যমন্ত্রী
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :
স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়ন কর্মসূচিগুলো সর্বোচ্চ স্বচ্ছতা, নিষ্ঠা ও দ্রুততার সাথে নির্দিষ্ট মেয়াদের মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, গত পাঁচ বছর সরকার কাজ করেছে বলে জনগণ রাজধানী থেকে গ্রাম পর্যন্ত আধুনিক স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে। এই ধারাবাহিকতা ভবিষ্যতেও অব্যাহত রাখতে সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আরো নিষ্ঠার পরিচয় দিতে হবে। স্বাস্থ্যখাতের ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতাকে সর্বাধিক প্রাধান্য দিতে হবে। 
আজ সচিবালয়ে স্বাস্থ্যখাতের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় সভাপতিত্বকালে স¦াস্থ্যমন্ত্রী এই নির্দেশ দেন।
মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের সময় স্বাস্থ্যখাতে যে সাফল্য এসেছে তাকে আরো ঊর্ধ্বে নিয়ে যেতে হবে। এ জন্যে আগামী দিনের কর্মসূচির সুষ্ঠু ও সফল বাস্তবায়ন নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই নিশ্চিত করতে হবে। একটি জনবান্ধব চিকিৎসা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হলে এই খাতের কোনো অংশে অনিয়ম ও গাফিলতি মেনে নেয়া যাবে না।
সভায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের অগ্রগতি নিয়ে পর্যালোচনা হয়। বেশ কিছু প্রকল্পের কাজ শেষ পর্যায়ে এবং উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেন। যেসব প্রকল্প ধীর গতিতে চলছে সেগুলোর কাজ আরো দ্রুততার সাথে এগিয়ে নিতে তিনি সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।
অন্যান্যের মধ্যে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মোঃ সিরাজুল হক খান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদসহ মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর এবং বাস্তবায়নাধীন বিভিন্ন প্রকল্পের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।
#
পরীক্ষিৎ/মাহমুদ/পারভেজ/জয়নুল/২০১৮/১৮১০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর : ১৬৬৪
 
পরিবেশ রক্ষায় আরো সচেতনতা প্রয়োজন
                   --- পরিবেশ ও বন মন্ত্রী
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :
পরিবেশ রক্ষায় আরো জনসচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। সরকার পরিবেশ ও উন্নয়ন ভাবনা একসাথে করছে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, উন্নয়ন কার্যক্রম যেমন চলমান রয়েছে তেমনি পরিবেশসম্মতভাবে উন্নয়ন কার্যক্রম চালু রাখা সরকারের লক্ষ্য। বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে আজ জাতীয় প্রেস ক্লাবে আইইউসিএন আয়াজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী বলেন, প্রতিবছর বিশ্বব্যাপী জনসচেতনতা তৈরির জন্য পরিবেশ দিবস পালন করা হয়। পরিবেশের বিষয়টা স্থানীয় ব্যাপার নয়, এ সমস্যাটি বৈশ্বিক। তাই প্রত্যেক দেশের মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরির জন্য প্রতিবছর ৫ই জুন বিশ্বব্যাপী এ দিবসটি পালন করা হয়। এবারের পরিবেশ দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয়ের ওপর আলোকপাত করে মন্ত্রী বলেন, এবার বিশ্ব পরিবেশ দিবসে আন্তর্জাতিক পরিবেশ কর্মসূচি যে স্লোগানটি বেছে নিয়েছে সেটি হচ্ছে, ‘ইবধঃ চষধংঃরপ চড়ষষঁঃরড়হ’. এই ইংরেজি স্লোগানটির ভাবানুবাদ করা হয়েছে ‘আসুন প্লাস্টিক দূষণ বন্ধ করি।’ এতে বোঝা যায়, প্লাস্টিক সামগ্রী ব্যবহারের কুফল সম্পর্কে বিশ্বব্যাপী জনসচেতনতা তৈরির প্রয়েজনীয়তা আসলেই দেখা দিয়েছে। প্লাস্টিক সামগ্রীর ব্যবহার শুধু যে পরিবেশের ক্ষতি করছে তা নয়, এটি মানবদেহের জন্যও ব্যাপক ক্ষতিকারক হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। পেটের পীড়া, হরমোনের সমস্যা, লিভারের সমস্যা, এমনকি অনেক ক্ষেত্রে ক্যান্সারের মতো ভয়ঙ্কর রোগের জন্য দায়ী এই প্লাস্টিক সামগ্রী। আইসক্রিম কাপ, সিরাপের বোতল, পানির বোতল, খাবারের কন্টেনার এসব প্লাস্টিকের তৈরি নিত্য ব্যবহার্য জিনিসগুলো কতটুকু স্বাস্থ্যসম্মত সে বিষয়ে সন্দেহের অবকাশ রয়েছে।
মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে দেশে পাটতন্তু থেকে প্রাপ্ত সেলুলোজ প্রক্রিয়াকরণের মাধ্যমে জৈব পচনশীল পলিব্যাগ ও মোড়ক প্রস্তুত করা সম্ভব হয়েছে। বেশ কয়েকটি দেশে উদ্ভাবিত জৈব পচনশীল পলিব্যাগ ও মোড়ক আন্তর্জাতিক বাজারে ক্রমশ সহজলভ্য হওয়ায় সরকার এ ধরনের বায়ো-ব্যাগ ও বায়ো-প্যাকেজিং শিল্পকে উৎসাহ প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আইইউসিএন-এর চেয়ারপার্সন হাসনা জসীম উদ্দীন মওদুদ, কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ রাকিবুল আমিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুর রব মোল্লা, উন্নয়ন অণে¦ষার প্রধান নির্বাহী রাশেদ আল মাহমুদ তীতুমীর, বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রেজোয়ানা হাসান প্রমুখ।   
#
পাশা/মাহমুদ/সঞ্জীব/জয়নুল/২০১৮/১৭১০ঘণ্টা  
তথ্যবিবরণী                                                                                          নম্বর ঃ ১৬৬৩
 
অংরধ চধপরভরপ ওহহড়াধঃরড়হ উধু অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ব্যাংককে গেছেন তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী  
ঢাকা, ২২ জ্যৈষ্ঠ (৫ জুন) :
ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ২ দিনের এক সরকারি সফরে আজ থাইল্যান্ডের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেছেন।
মন্ত্রী আগামী ৬-৭ জুন ব্যাংককে অনুষ্ঠিত '৪ঃয অংরধ চধপরভরপ ওহহড়াধঃরড়হউধু' উপলক্ষে আয়োজিত প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন। তিনি অনুষ্ঠানে 'ঐড়ি রিষষ রহহড়াধঃরাব ঃবপযহড়ষড়মু বহধনষব ফরমরঃধষ ঃৎধহংভড়ৎসধঃরড়হ রহ ঃযব ওহফঁংঃৎু' বিষয়বস্তুর ওপর বক্তব্য রাখবেন। এছাড়া, তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী এবং উদ্যোক্তাদের সহায়তা বিষয়ক কর্ম অধিবেশনসহ বিভিন্ন অধিবেশনে অংশগ্রহণ করবেন। তিনি এ উপলক্ষে আয়োজিত মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে অংশগ্রহণ করবেন।
 
#
 
শহিদুল/অনসূয়া/রেজ্জাকুল/শামীম/২০১৮/১৪০০ ঘণ্টা 
 
তথ্যববিরণী                                                                                                   নম্বর : ১৬৬২
 
জাতীয় সংসদরে ‘র্কায উপদষ্টো কমটিরি বঠৈক 
 
ঢাকা, ২২ জ্যষ্ঠৈ (৫ জুন) : 
  
জাতীয় সংসদরে ‘র্কায উপদষ্টো কমটি’ির একুশতম বঠৈক আজ জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠতি হয়। কমটিরি সভাপতি জাতীয় সংসদরে স্পকিার ড. শরিীন শারমনি চৌধুরী বঠৈকে সভাপতত্বি করনে। কমটিরি সদস্য এবং সংসদ নতো ও প্রধানমন্ত্রী শখে হাসনিা বঠৈকে অংশগ্রহণ করনে।
          কমটিরি সদস্য বরিোধী দলীয় নতো রওশন এরশাদ এমপ,ি হুসইেন মুহম্মদ এরশাদ এমপ,ি তোফায়লে আহমদে এমপ,ি শখে ফজলুল করমি সলেমি এমপ,ি মো. ফজলে রাব্বী ময়িা এমপ,ি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপ,ি রাশদে খান মনেন এমপ,ি আ স ম ফরিোজ এমপ,ি মইন উদ্দীন খান বাদল এমপি এবং সভাপতরি অভপ্রিায় অনুযায়ী বশিষে আমন্ত্রণে র্অথমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহতি এমপি বঠৈকে অংশগ্রহণ করনে।
          বঠৈকে সদ্ধিান্ত গৃহীত হয়, দশম জাতীয় সংসদরে ২১তম অধবিশেন অদ্য ৫ জুন শুরু হয়ে আগামী 
১২ জুলাই র্পযন্ত চলব।ে পবত্রি রমজান মাসে প্রতদিনি সকাল ১০.৩০ টায় এবং রমজানরে পর প্রতদিনি বকিাল ৩টায় অধবিশেন শুরু হব।ে 
৭ জুন, বৃহস্পতবিার দুপুর ১২.৩০ টায় সংসদে ২০১৮-১৯ র্অথবছররে বাজটে উপস্থাপন করা হব।ে ২০১৮-১৯ র্অথবছররে বাজটে পাস হওয়া র্পযন্ত প্রতি বৃহস্পতবিার ৪টি সরকারি দবিস হসিবেে গণ্য হব।ে ১০ ও ১১ জুন সম্পূরক বাজটে আলোচনার পর পাস করা হব।ে এছাড়া ২৭ জুন র্অথবলি এবং ২৮ জুন ২০১৮-১৯ র্অথবছররে বাজটে পাস করা হব।ে ২৩ জুন শনবিার ১ দনি ব্যতীত প্রতি শুক্র ও শনবিার অধবিশেন বন্ধ থাকব।ে  সাধারণ বাজটেরে ওপর মোট ৪০ ঘন্টা আলোচনার সদ্ধিান্ত গৃহীত হয়। তবে প্রয়োজনে দনি ও সময় স্পকিার পরর্বিতন করতে পারবনে।
          বঠৈকরে শুরুতে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটলোইট এর সফল উৎক্ষপেন ও কাজী নজরুল বশ্বিবদ্যিালয় র্কতৃক প্রধানমন্ত্রী শখে হাসনিাকে সম্মানসূচক ড.ি লটি ডগ্রিতিে ভূষতি করায় কমটিি প্রধানমন্ত্রী শখে হাসনিাকে অভনিন্দন জানায়। 
          বঠৈকে জানানো হয় এ অধবিশেনে উত্থাপনরে জন্য ৪টি সরকারি বলিরে নোটশি পাওয়া গছে।ে এছাড়া সংসদে পাসরে অপক্ষোয় ৪ট,ি কমটিতিে পরীক্ষাধীন ৭টি ও উত্থাপনরে অপক্ষোয় ২টসিহ অনষ্পিন্ন মোট ১৭টি সরকারি বলি এবং অনষ্পিন্ন ৯টি বসেরকারি বলি এ অধবিশেনে রয়ছে।ে এ অধবিশেনে উত্থাপনরে জন্য কোন বসেরকারি বলিরে নোটশি পাওয়া যায়ন।ি প্রধানমন্ত্রীর জন্য ১৫০টি ও সাধারণ প্রশ্ন ২৫০৭টসিহ মোট ২৬৫৭টি প্রশ্ন পাওয়া গছে।ে এছাড়া সদ্ধিান্ত প্রস্তাব ১৭১টি ও মনোযোগ আকর্ষণরে ৪২টি এবং সংক্ষপ্তি আলোচনার জন্য ১টি নোটশি পাওয়া গছে।ে  
প্রচলতি রীতি অনুযায়ী এ অধবিশেনরে প্রথম বঠৈকে সাবকে সংসদ সদস্য ও বশিষ্টি ব্যক্তর্বিগরে মৃত্যুতে বনিা আলোচনায় এবং বদ্যিমান সংসদরে সংসদ সদস্য এ কে এম মাঈদুল ইসলাম (২৭ কুড়গ্রিাম-৩) এর মৃত্যুতে সংক্ষপ্তি আলোচনাসহ শোকপ্রস্তাব গৃহীত হব।ে
বাংলাদশে জাতীয় সংসদরে সনিয়ির সচবি ড. মোঃ আবদুর রব হাওলাদার বঠৈকরে র্কাযপত্র উপস্থাপন করনে। সংসদ সচবিালয়রে র্ঊধ্বতন র্কমর্কতাগণ বঠৈকে উপস্থতি ছলিনে।
#
তারকি/অনসূয়া/রজ্জোকুল/আসমা/২০১৮/১৩১৪ ঘণ্টা 
Todays handout (4).docx Todays handout (4).docx

Share with :

Facebook Facebook