তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৬ অক্টোবর ২০১৫

তথ্যবিবরণী ১৬/১০/২০১৫

তথ্যবিবরণী                                                                  নম্বর : ৩০২৬

খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় সাবকমিটির বগুড়া 
ও  সিরাজগঞ্জে খাদ্যগুদাম ও সাইলো পরিদর্শন

ঢাকা, পয়লা কার্তিক (১৬ অক্টোবর) :


খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির এক নম্বর সাবকমিটি আজ সিরাজগঞ্জ জেলার চান্দাইকোনা খাদ্যগুদাম, বগুড়ার সান্তাহারে খাদ্যগুদাম ও নির্মাণাধীন সাইলো সরজমিনে পরিদর্শন করে। সাবকমিটির আহ্বায়ক সংসদ সদস্য  শেখ ফজলে নূর তাপস, অন্য সদস্য শেখ মো. নূরুল হক এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য আব্দুল মালেক পরিদর্শনে অংশ  নেন। খাদ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ফয়েজ আহমেদসহ সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

সাবকমিটি খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন বিভিন্ন প্রকল্পের কাজের মান ও অগ্রগতি যাচাইয়ের অংশ হিসেবে এ পরিদর্শন করে। তারা বগুড়ার সান্তাহারে নির্মাণাধীন সাইলো পরিদর্শনকালে এর গুণগতমান ও কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন এবং খাদ্যগুদামগুলোর বাস্তব অবস্থা যাচাই করেন। তারা গুদামে রক্ষিত শস্যের গুণগতমান পরীক্ষা, খাদ্য সংগ্রহে অর্জিত সাফল্য এবং খাদ্য সংগ্রহের সক্ষমতা সম্পর্কে অবহিত হন। 

সাবকমিটির আহ্বায়ক সংসদ সদস্য শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, বাংলাদেশ বর্তমানে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এখন সরকারের মূল কাজ খাদ্য উৎপাদন টেকসই করা  এবং খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। সরকার সে লক্ষ্যে কাজ করছে। সরকারের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে  তিনি সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।    

তিনি বলেন, যে দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ সে দেশ পিছিয়ে থাকতে পারে না। স্বাস্থ্য, শিক্ষা, বস্ত্র, বাসস্থানসহ সকল মৌলিক চাহিদা পূরণে বাংলাদেশ সক্ষমতা অর্জন করেছে। তাই বর্তমান বিশ্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল।   

তিনি আরো বলেন, ভিশন ২০২১ সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নারীর ক্ষমতায়ন, শিশু ও মাতৃ মৃত্যুহার রোধ, নিরক্ষরতা দূরীকরণ, পরিবেশ উন্নয়নসহ সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার সকল অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জন করে বাংলাদেশ এসডিজি  অর্জনে অব্যাহত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। 

#

শিবলী/মিজান/নবী/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৯৩০ ঘণ্টা     
 
তথ্যবিবরণী                                                                  নম্বর : ৩০২৫

আইপিইউ’র সম্মেলনে যোগ দিতে সংসদীয় 
প্রতিনিধিদলের জেনেভার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ

ঢাকা, পয়লা কার্তিক (১৬ অক্টোবর) :

    ১৭  থেকে ২১ অক্টোবর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠেয় ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) এর ১৩৩তম সম্মেলনে অংশ নিতে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার নেতৃত্বে ১২ সদস্যের একটি সংসদীয় প্রতিনিধিদল জেনেভার উদ্দেশ্যে আজ ঢাকা ত্যাগ করেছেন। 

    পাঁচ দিনব্যাপী এ সম্মেলনের মূল বিষয়বস্তু ‘‘দ্য মোরাল এন্ড ইকনমিক ইমপেরেটিভ ফর ফেয়ারার, স্মার্টার এন্ড  মোর হিউম্যান মাইগ্রেশন’’। বিষয়বস্তুর পাশাপাশি সম্মেলনে বিভিন্ন স্থায়ী কমিটি বিশ্ব শান্তি ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা, টেকসই উন্নয়ন, অর্থ ও বাণিজ্যসহ জাতিসংঘ এফেয়ার্স সম্পর্কিত বিষয়সমূহের ওপর আলোচনা ও সুপারিশ করবে।

    এছাড়া, গণতন্ত্র ও মানবাধিকার সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটিতে ‘ডেমোক্রেসি ইন দ্য ডিজিটাল এরা এন্ড দ্য থ্রেট টু প্রাইভেসি এন্ড ইন্ডিভিজ্যুয়াল  ফ্রিডমস’ সম্পর্কে সংসদ সদস্যগণ আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন। 

    সম্মেলনে যোগদানকারী সংসদীয় প্রতিনিধিদলের অন্য সদস্যরা হলেন, বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ, এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, মো. নুরুল ইসলাম সুজন, মইন উদ্দীন খান বাদল, ফজলে হোসেন বাদশা, হাজী মো. সেলিম, বেগম শিরিন নাঈম, বেগম রওশন আরা মান্নœান, সেলিম উদ্দিন এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আশরাফুল মকবুল। 
     
 #

স¦পন/মিজান/নবী/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৯৩০ ঘণ্টা     
 

তথ্যবিবরণী                                                    নম্বর : ৩০২৪


নরসিংদী ও সুনামগঞ্জের দু’টি ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে


ঢাকা, পয়লা কার্তিক (১৬ অক্টোবর) :

    জাতীয় দৈনিকে নরসিংদীর শিবপুরে ‘শিক্ষকদের অপমানে শিক্ষার্থীর বিষপান’, সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে ‘মিসডকল দেওয়ার অপরাধে শিশু শিক্ষার্থীর গলায় জুতার মালা, অভিযুক্ত শিক্ষক গ্রেপ্তার’ শীর্ষক খবরের প্রতি শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে। 

    এ দু’টি পৃথক ঘটনায় নরসিংদী ও সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

#
সাইফুল্লাহ/মিজান/নবী/মোশারফ/আব্বাস/২০১৫/১৯৩৫ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                  নম্বর : ৩০২৩

চীনে সিল্ক  রোড সম্মেলনে স্পিকার
পারস্পরিক সহযোগিতা নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব

বেইজিং (চীন), ১৬ অক্টোবর :
স্পিকার ও সিপিএ চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন,  আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পারস্পরিক সহযোগিতা নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব। 
স্পিকার আজ চীনের বেইজিংয়ে দ্য  সেন্ট্রাল কমিটি অভ্ দ্য কমিউনিস্ট পার্টি অভ্ চায়না (সিপিসি) আয়োজিত ‘‘এশিয়ান পলিটিক্যাল পার্টিস  স্পেশাল কনফারেন্স অন দ্য সিল্ক  রোড -অংরধহ চড়ষরঃরপধষ চধৎঃরবং’ ঝঢ়বপরধষ ঈড়হভবৎবহপব ড়হ ঃযব ঝরষশ জড়ধফ’’ এর সমাপনী পর্বে বক্তৃতাকালে একথা বলেন।  
স্পিকার বলেন, বাংলাদেশ নিবিড় ও গতিশীল অর্থনৈতিক উন্নয়নের মাধ্যমে দেশের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে বদ্ধপরিকর। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সাধন করেছে। এই উন্নয়ন অগ্রযাত্রা শুধু অর্থনৈতিক উন্নয়নের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই বরং এটি নারীর অগ্রগতি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি, স্বাস্থ্য ও শিক্ষার মান উন্নয়ন, সর্বোপরি মানবসম্পদ উন্নয়ন পর্যন্ত বিস্তৃত। এর ফলে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে নিজের অবস্থানকে আরো সুদৃঢ় করবে। 
স্পিকার বলেন, দারিদ্র্যদূরীকরণ, সামাজিক নিরাপত্তা প্রদান, দুর্যোগ ঝুঁকি ও জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলা,  অনানুষ্ঠানিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসচেতনতা, খাদ্য নিরাপত্তা, টেকসই উন্নয়ন, প্রযুক্তি উন্নয়ন এবং নারীকে অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূলধারায় সম্পৃক্ত করতে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, গ্রান্ডট্রাঙ্ক রুটের মতো সিল্করুটও আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের নিকটবর্তী প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে সিল্করুটের মাধ্যমেই যোগাযোগ হতো। কালের পরিক্রমায় এটি পারস্পরিক সেতুবন্ধের নিদর্শন হিসেবে দাঁড়িয়েছে। 
তিনি বলেন, এ সম্মেলন বিভিন্ন বিষয়ে সকলের দৃষ্টিভঙ্গির নতুন দিগন্ত উন্মোচন করেছে। এটি এ অঞ্চলে  গতিশীল রাজনৈতিক নেতৃত্ব সৃষ্টিতে এবং এ অঞ্চলের জনগণের  মধ্যে সেতুবন্ধ অধিকতর সুদৃঢ় করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এ অঞ্চলের প্রত্যেকটি দেশকে আঞ্চলিক সহযোগিতার মাধ্যমে একযোগে কাজ করতে হবে।
স্পিকার আগামীকাল দেশে ফিরবেন বলে আশা করা হচ্ছে। 
#
মঞ্জুর/মিজান/নবী/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৯৪০ ঘণ্টা     
 
তথ্যবিবরণী                                                                  নম্বর : ৩০২২

বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি কৃষি                  
                                                             -- মৎস্য প্রতিমন্ত্রী

খুলনা, পয়লা কার্তিক (১৬ অক্টোবর):
    মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেছেন, বর্তমান সরকার সকলের জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করে যাচ্ছে। সরকার কৃষিক্ষেত্রে বিপ্ল¬ব ঘটিয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তিই কৃষি। 
    প্রতিমন্ত্রী আজ খুলনার দৌলতপুর মেট্রোপলিটন কৃষি মিলনায়তনে মাসব্যাপী ইঁদুর নিধন অভিযান উদ্বোধন এবং বিশ্ব খাদ্য দিবস-২০১৫ পালন উপলক্ষে আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন। দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘গ্রামীণ দারিদ্র্যবিমোচন ও সামাজিক সুরক্ষায় কৃষি’। খুলনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
    প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভরতুকি প্রদানসহ নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে দেশ কৃষিতে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে। দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করে বিদেশে খাদ্য রফতানি করছে। বাংলাদেশের গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর দারিদ্র্যবিমোচনে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির সাথে সামাজিক সুরক্ষা জড়িত। ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার খাদ্য নিরাপত্তা অর্জন ও নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে সরকার কৃষিখাতের উন্নয়ন অব্যাহত  রেখেছে। বর্তমান সরকার সার, বীজসহ সকল কৃষি উপকরণের মূল্যহ্রাস, সহজশর্তে ও স্বল্পসুদে ঋণসুবিধা এবং বিভিন্ন প্রণোদনা প্রদান করছে।
ফসল ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি রোধে  ইঁদুরকে অন্যতম সমস্যা চিহ্নিত করে তিনি বলেন, সকলস্তরের জনগণকে ইঁদুর নিধন কার্যক্রমে উদ্বুদ্ধ ও সচেতন করতে হবে। ইঁদুর নিধনে লাগসই প্রযুক্তি উদ্ভাবনে তিনি কৃষি সম্প্রসারণ অফিস, কৃষি বিজ্ঞানী এবং কৃষকদের ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।
    খুলনা জেলা প্রশাসক মো. মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খুলনা অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক ভুপেশ কুমার মন্ডল এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. আব্দুল লতিফ বক্তৃতা করেন, মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন দৌলতপুর কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. প্রশান্ত কুমার সরদার। 
প্রতিমন্ত্রী ইঁদুরের লেজ কেটে মাসব্যাপী ইঁদুর নিধন অভিযান কার্যক্রমের উদ্বোধন, ইঁদুর নিধন কার্যক্রমের ওপর ভিত্তি করে জেলা পর্যায়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রদান এবং ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করেন। 
    এছাড়া, প্রতিমন্ত্রী  ফুলতলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ফুলতলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ, পূজা মন্দির কমিটি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন এবং বিভিন্ন পূজাম-পে অনুদান প্রদান করেন।
#
সুলতান/মিজান/নবী/সঞ্জীব/সেলিম/২০১৫/১৮৩০ ঘণ্টা     

Handout                                                                                 Number: 3021

 

Education Minister stresses on massive social

awareness to combat child repression

 

Dhaka, 16 October :

 

          Education Minister Nurul Islam Nahid has stressed on enforcement of relevant laws along with massive social awareness in combating repression on children.

 

          The Minister was speaking as chief guest at a debate competition at Bangladesh Shishu Academy Auditorium in Dhaka today.

 

          The debate titled ‘Not good governance, rather social degradation is the main reason for torture on children’ was arranged by Debate for Democracy and National Female Child Advocacy Forum in cooperation with PLAN International Bangladesh.

 

          Mr. Nahid while highlighting various measures taken by the government to rein child abuse said eve-teasing sneaked as a serious problem few years back and it reduced drastically because of immediate stringent actions by the law enforcing agencies. He, however, said social crimes cannot be fully eradicated through application of laws. What we should do is to build up a huge social awareness against such misdeeds, he added.

 

          Chaired by Chairman of Debate For Democracy Hasan Ahmed Chowdhury Kiron the function was also addressed by Bangladesh Shishu Academy Director Mosharraf Hossain, BRAC Director Shipa Hafiza, Saint Joseph Higher Secondary School Principal Father Robi Purification and National Female Child Advocacy Forum Secretary Nasima Akter Joly .

 

          Earliar, at the debate competition Bajrajoghini J K High School, Munshigonj and Adamji Cantonment College emerged as joint champions.

 

#

Saifullah/Mizan/Sanjib/Abbas/2015/1732 Hours

তথ্যবিবরণী                                       নম্বর : ৩০২০
ঈশ্বরদীতে ভূমিমন্ত্রী
খাসজমিতে গুচ্ছগ্রাম, গণগ্রন্থাগার ও মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লে¬ক্স দ্রুত বাস্তবায়নের নির্দেশ


ঈশ্বরদী, পয়লা কার্তিক (১৬ অক্টোবর) :

    ঈশ্বরদীতে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লে¬ক্স, গুচ্ছগ্রাম, গণগ্রন্থাগার ও একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প নির্মাণে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি)সহ সংশ্লি¬ষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ । মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে এবং একটি উন্নত জাতি গঠনের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি সরকারের উন্নয়নমূলক কাজ বাস্তবায়নে সকলকে আন্তরিক হওয়ার আহ্বান জানান।
মন্ত্রী আজ ঈশ্বরদী পৌর শেরশাহ রোডে তাঁর বাসভবন প্রাঙ্গণে জনসাধারণের সাথে মতবিনিময়কালে উপস্থিত সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে একথা বলেন । 
মন্ত্রী বলেন, সরকার সারাদেশে স্বামী পরিত্যক্তা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, বয়স্ক ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা, বিধবা ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, ভিজিডি, ভিজিএফ, টিআরসহ দরিদ্রের সহায়ক নানা কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছে। তিনি বলেন, দুঃখী, অসহায় ও নিঃস্ব মানুষের জীবন ও জীবিকার মান উন্নয়নকে বর্তমান সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে। নিঃস্ব, অসহায় নিম্নশ্রেণির মানুষের সন্তানেরা এখন স্কুল কলেজে যাচ্ছে। দেশ এগোচ্ছে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে। 
মন্ত্রী ঈশ্বরদীর পাকশীতে সম্প্রতি পুলিশ অফিসার হত্যা ও খ্রিস্টান ধর্মযাজক লুক সরকারকে হত্যা প্রচেষ্টাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লি¬ষ্টদের নির্দেশ দেন।‘
 মন্ত্রী বলেন, মাদকসেবী, সন্ত্রাসী, ছিনতাইকারী ও অপহরণকারীদের ব্যাপারে কোন আপোশ নেই। তিনি সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী, নারী ধর্ষণকারী ও ইভটিজিংয়ের সাথে জড়িতদের নামের তালিকা সমাজসেবক ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীদের কাছে প্রদানের জন্য এলাকাবাসীর প্রতি আহ্বান জানান। তিনি অন্ধকার পথের অনুসারীদের আলোর পথে আসারও আহ্বান জানান।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাকিল মাহমুদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহিদ নেওয়াজ, ঈশ্বরদী থানা অফিসার ইনচার্জ বিমান কুমার দাস, ঈশ্বরদী উপজেলা চেয়ারম্যান মুখলেছুর রহমান মিন্টু ও ভাইস চেয়ারম্যান মাহজেবিন শিরীন পিয়া উপস্থিত ছিলেন।
পরে মন্ত্রী ঈশ্বরদী আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন। 
মন্ত্রী সম্প্রতি প্রয়াত দুই মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল হক লালা ও আবদুর রহমান ওরফে লেন্টু বিশ্বাসের বাড়িতে গিয়ে তাদের পরিবারের সদস্যদের সাথে সাক্ষাৎ করেন। মন্ত্রী প্রয়াতদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
#
রেজুয়ান/মিজান/মোশারফ/আব্বাস/২০১৫/১৭২৫ ঘণ্টা

 

 

Todays handout (3).doc Todays handout (3).doc

Share with :

Facebook Facebook