তথ্য অধিদফতর (পিআইডি) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৪ অক্টোবর ২০২১

তথ্যবিবরণী ৪ অক্টোবর ২০২১

Handout                                                                                                                       Number : 4740

Bangladesh-Bhutan Business Dialogue held in Bhutan

 

Bumthang (Bhutan), 4 October :  

The Embassy of Bangladesh in Bhutan organized a business event titled 'Bangladesh Bhutan Business Dialogue' in Bumthang, one of the most vibrant cities of Bhutan, on 1 October 2021. The event was held as a part of mission’s celebration of the Birth Centenary of the Father of the Nation Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman, and the Golden Jubilee of Bangladesh’s independence.

 

 The focus of the event was to highlight Bangladesh’s recent achievements under the leadership of Prime Minister Sheikh Hasina and advancement towards ‘Sonar Bangla’ as envisioned by the Father of the Nation through cooperation in trade and investment. The event provided an opportunity to exchange ideas with the local business community on maximizing the benefits of recently signed Preferential Trade Agreement (PTA) between the two countries. The Embassy organized the event in association with the Dzongkhag Business Development Committee (DBDC), which is the representative of the Bhutan Chamber of Commerce and Industry (BCCI) in Bumthang area.

 

Ambassador of Bangladesh to Bhutan A K M Shahidul Karim presided over the dialogue while the Governor of Bumthang, Ms. Kesang Choden Dorji attended the event as a special guest.

 

 

#

Sujan Debnath/Pasha/Nice/Sahela/Rejuan/Mosharaf/Abbas/2021/2049 Hours

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৪৭৩৯

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টরের বিদায়ী অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী

                                         

ঢাকা ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) :

          অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহনের পরিবারের কাছে বাংলাদেশিরা চিরকৃতজ্ঞ, কেননা তার বীর পিতা ভারতীয় বিমান বাহিনীর সদস্য হিসেবে বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করেছিলেন। আর তিনি তার চার বছরের অসামান্য সেবার মাধ্যমে বাংলাদেশের উন্নয়ন যাত্রায় নিজেকে সম্পৃক্ত রেখে আমাদেরকে ঋণী করেছেন।

          আজ ঢাকায় প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে এডিবি’র কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশের বিদায়ী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এসব কথা বলেন।

          অর্থমন্ত্রী বলেন, সমকালীন বৈশ্বিক উন্নয়ন বিষয়গুলোতে মনমোহনের বুদ্ধিমত্তা এবং দূরদর্শী চিন্তাভাবনা সত্যিই বিস্ময়কর, যা অনস্বীকার্য। বছরের পর বছর বাংলাদেশকে মনমোহন যে অকৃত্রিম সমর্থন দিয়েছেন, তাতে বাংলাদেশের এবং এডিবির মধ্যে সম্পর্ক একটি নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। মনমোহন দাপ্তরিক দায়িত্ব পরিবর্তনের কারণে আমাদের কাছে বিদায় নিলেও কার্যত তিনি সর্বদা আমাদের সাথে থাকবেন কেননা তিনি তার কাজের মাধ্যমে জয় করেছেন আমাদের হৃদয় ও মনকে।

          এডিবি নতুন মনোনীত কান্ট্রি ডিরেক্টর Edimon Ginting -কে স্বাগত জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, তিনি আমাদের দলের নতুন সদস্য। Edimon Ginting আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা পাবেন। আশা করছি তিনিও বাংলাদেশের উন্নয়ন যাত্রায় নিজেকে সম্পৃক্ত করে আমাদের অকৃত্রিম বন্ধুতে পরিণত হবেন।

#

তৌহিদুল/পাশা/সাহেলা/রেজুয়ান/এনায়েত/মোশারফ/জয়নুল/২০২১/১৯৩৫ঘণ্টাতথ্যবিবরণী                                                                                                                                  নম্বর : ৪৭৩৮

ক্লিনফিড বাস্তবায়নের উদ্যোগের জন্য তথ্যমন্ত্রীকে এটকো'র অভিনন্দন

 

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর )  :

            ক্লিনফিড বাস্তবায়নের পদক্ষেপের জন্য তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর মালিকদের সংগঠন এসোসিয়েশন অভ টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স (এটকো) প্রতিনিধিবৃন্দ। 

 

            আজ সচিবালয়ে মন্ত্রীর দপ্তরে এলে ড. হাছান মাহমুদ এটকো প্রতিনিধিবৃন্দকে স্বাগত জানান ও বৈঠকে মিলিত হন। মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মকবুল হোসেন এসময় উপস্থিত ছিলেন। এটকো সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোজাম্মেল হক বাবু, ডিবিসি২৪ চ্যানেলের চেয়ারম্যান ইকবাল সোবহান চৌধুরী, সময় টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ জোবায়ের, দীপ্ত টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী জাহিদুল হাসান, দেশ টেলিভিশনের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিফ হাসান, ডিবিসি২৪ চ্যানেলের প্রধান সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম প্রমুখ বৈঠকে যোগ দেন।  

 

            তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহ্‌মুদ বলেন, দেশের স্বার্থে, জনগণের স্বার্থে, দেশের গণমাধ্যম শিল্পের সবার স্বার্থে আমরা আইন অনুযায়ী বিদেশি চ্যানেলের বিজ্ঞাপনমুক্ত সম্প্রচার বা ক্লিনফিড বাস্তবায়নের কাজ করছি। সুতরাং দেশ ও সবার স্বার্থের বিপক্ষে কেউ অবস্থান গ্রহণ করবেন বা তাদের পক্ষে কেউ ওকালতি করবেন এটি কখনো কাম্য নয়। 

 

            সম্প্রচার মন্ত্রী দেশের সকল গণমাধ্যম, শিল্পী-কলাকুশলীকে এ আইনের প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ জানান এবং বলেন, ‘আইন অনুযায়ী বিদেশি চ্যানেলের বিজ্ঞাপনমুক্ত সম্প্রচার বা ক্লিনফিড বাস্তবায়নের জন্য সকল পক্ষের সাথে দুই বছর আগে থেকে দফায় দফায় বৈঠক করা হয়েছে এবং আগস্ট মাসের বৈঠকে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত ছিল যে পয়লা অক্টোবর থেকে আমরা এই আইন কার্যকর করবো। কিন্তু এটি নিয়ে একটি মহল থেকে বিভ্রান্তি  সৃষ্টির অপচেষ্টা হয়েছে। আমি আশা করবো এই বিভ্রান্তি ছড়ানো থেকে তারা বিরত থাকবে। সরকার আইন বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর এবং প্রধানমন্ত্রী আমাদেরকে সাহস না জোগালে আমরা এ কাজগুলো কখনো করতে পারতাম না।’

 

            ‘বাংলাদেশের আকাশ উন্মুক্ত, বাংলাদেশে কোনো চ্যানেল সরকারের পক্ষ থেকে বন্ধ করা হয়নি, বন্ধ করতেও বলা হয়নি’ উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, আমাদের দেশের চ্যানেলগুলো ভালো অনুষ্ঠান প্রচার করতে পারে এবং অনেকেই করে। যে সমস্ত বিদেশি চ্যানেল আমাদের আইনকে তোয়াক্কা করে না, আমাদের আইনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে, আমাদের কৃষ্টি, সংস্কৃতিকে চোখ রাঙ্গায় সেগুলোর পক্ষে ওকালতি করা সমীচীন নয় বলে আমি মনে করি। অবশ্যই সব চ্যানেলের জন্যই আমাদের দ্বার উন্মুক্ত।  কিন্তু আইন মেনে দেশের স্বার্থ সংরক্ষণ করে সেই চ্যানেল সম্প্রচার হতে হবে। 

 

            বিদেশি চ্যানেলের পরিবেশক ও ক্যাবল অপারেটরদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, যে সমস্ত বিদেশি চ্যানেল বাংলাদেশে ক্লিনফিড দেয়, আকাশ ডিটিএইচ এগুলো চালাচ্ছে। অন্যরাও যদি এগুলো না চালায় তাহলে লাইসেন্সের শর্তভঙ্গ হবে। সুতরাং শর্তভঙ্গের কাজ কেউ করবেন না। 

 

             তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী আরো বলেন, ‘বিদেশি চ্যানেলগুলো পাকিস্তানে, নেপালে, শ্রীলংকায় ক্লিনফিড পাঠায়। আর ক্লিনফিড পাঠানোর জন্য যে  বড় রকমের বিনিয়োগ ও কারিগরি সুবিধা লাগে এসব কথামালা বিভ্রান্তি ছড়ানোর অপচেষ্টারই অংশ। এখন ডিজিটাল প্রযুক্তিতে এগুলো সহজেই করা সম্ভব এবং সেটি সংশ্লিষ্ট চ্যানেল করতে পারে। এই দায়িত্ব প্রথমত সংশ্লিষ্ট চ্যানেলের, দ্বিতীয়ত যারা সেই চ্যানেল ডাউলিংক করার অনুমতি নিয়েছেন, তাদের। তারা ব্যবসা করার স্বার্থেই এই সমস্ত চ্যানেল ডাউনলিংক করার জন্য অনুমতি নিয়েছেন এবং লাইসেন্স দেয়ার সময় ক্লিনফিডের শর্তের কথা বলা আছে। ক্যাবল অপারেটরেরাও সেই শর্তের কথা মেনেই তারা লাইসেন্স নিয়েছেন। এমন নয় যে, তারা ছাড়া আর বাংলাদেশে কেউ ক্যাবল অপারেটরের লাইসেন্স চায় না। আমাদের কাছে বহু ক্যাবল অপারেটরের লাইসেন্সের দরখাস্ত জমা পড়েছে। আমরা সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছি। সুতরাং আইন ভঙ্গ করলে, শর্তভঙ্গ করলে বা বিভ্রান্তি ছড়ালে আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

            সভায় মন্ত্রী আরো বলেন, ক্যাবল অপারেটরবৃন্দসহ সবপক্ষকে নিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি পয়লা নভেম্বর থেকে ঢাকা এবং চট্টগ্রামে ক্যাবল অপারেটিং সিস্টেমকে তারা ডিজিটালাইজ করবে। আমি আশা করবো এই সময়সীমা সবাই অনুসরণ করার চেষ্টা করবেন। আমি আশা করবো সবাই দেশের স্বার্থ এবং আইন মানাকে তুলে ধরবেন। 

চলমান পাতা-২

      

পাতা-২

 

            তথ্য ও  সম্প্রচার সচিব মোঃ মকবুল হোসেন জানান, ‘আমি দেশের সকল জেলার ডেপুটি কমিশনারদের সাথে ভিডিও কনফারেন্স করেছি, ক্লিনফিড আইন বাস্তবায়নে সরকার প্রস্তুত আছে।’

 

            বৈঠকে এটকোর সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী বলেন, ক্লিনফিডের বিষয়টি আমাদের প্রাণের দাবি। ২০০৬ সালে বাস্তবায়নের জন্য আইন করা হলেও সেটি বাস্তবায়ন করা যায়নি। সবাইকে চিন্তা করতে হবে দেশের জন্য ভালো কোনটি। সারা পৃথিবীতে ক্লিনফিডের বিষয়টি রয়েছে। এর ফলে প্রচুর অর্থ দেশ থেকে চলে গেছে। এখন শুধু টেলিভিশন মালিকরা লাভবান হবে না, পুরো দেশ লাভবান হবে।

 

            এর আগে ডিবিসি২৪ চ্যানেলের চেয়ারম্যান ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, ক্যাবল অপারেটরদের ওপর নির্দেশ ছিলো যে সব চ্যানেলের ক্লিনফিড আছে, সেগুলো চলবে। কিন্তু সব চ্যানেল বন্ধ করে দিয়ে তারা বিদেশের কাছে ভুল বার্তা দিয়েছে।

 

            এটকোর সিনিয়র সহ-সভাপতি মোজাম্মেল হক বাবু বলেন, টিআরপির ক্ষেত্রে নৈরাজ্য চলছিলো। কোনো অনুমতি ছাড়া একটি প্রতিষ্ঠান টিআরপি করছিলো। তারা কোনো কোনো প্রতিষ্ঠানকে সুবিধা দিতো। এটি বন্ধ করার গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তের জন্যও তথ্য ও   সম্প্রচার মন্ত্রীকে ধন্যবাদ। 

 

#

আকরাম/পাশা/নাইচ/সাহেলা/রেজুয়ান/মোশারফ/আব্বাস/২০২১/২০২২ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৪৭৩৭

উজবেকিস্তানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সাথে পোল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :

            উজবেকিস্তানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের সাথে সেদেশে নিযুক্ত পোল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত রাডসটাউ গ্রুক বাংলাদেশ দূতাবাসে আজ এক সাক্ষাতে মিলিত হন। উভয় রাষ্ট্রদূত পারস্পারিক  স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা করেন। পোল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের অর্থনীতির সাম্প্রতিক সাফল্য উচ্চ প্রবৃদ্ধি, মাথা পিছু আয়ের ক্ষেত্রে ভারতকে ছাড়িয়ে যাওয়া, আরএমজি এবং ফার্মাসিউটিক্যালস সেক্টরে বাংলাদেশের অভাবনীয় সাফল্যের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন। তিনি বাংলাদেশের দর্শনীয় স্থানসমূহ এবং প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দর্শনের জন্য বাংলাদেশ ভ্রমণের ইচ্ছা পোষণ করেন। 
            অপরদিকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বিশেষত পোল্যান্ড-উজবেকিস্তানের মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তিসমূহের বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানতে চান। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশিদের পোল্যান্ড ভ্রমণের ক্ষেত্রে ইউরোপের সেনজেন ভিসা প্রাপ্তির প্রধান প্রতিবন্ধকতাসমূহ সম্পর্কে পোল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের কাছ থেকে অবহিত হন। সাক্ষাৎকালে বাংলাদেশ দূতাবাসের উপপ্রধান ও মিনিস্টার নৃপেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ উপস্থিত ছিলেন। 

 #

নৃপেন্দ্র/পাশা/নাইচ/সাহেলা/রেজুয়ান/এনায়েত/মোশারফ/শামীম/২০২১/১৮৫৩ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                নম্বর : ৪৭৩৬

কৃষিখাতে নেদারল্যান্ড-বাংলাদেশ সহযোগিতার জন্য সমঝোতা স্মারক সই

ঢাকা ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) :

          কৃষিপণ্য রপ্তানি ও প্রক্রিয়াজাতে নেদারল্যান্ডের সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ। এছাড়া কৃষিখাতে পারস্পরিক সহযোগিতার জন্য সমঝোতা স্মারক সই করতে আগ্রহ দেখিয়েছে বাংলাদেশ।

          আজ সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাকের সাথে ঢাকায় নিযুক্ত নেদারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত Anne Gerard van Leeuwen সাক্ষাৎ করতে এলে মন্ত্রী এ আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেন।

          বাংলাদেশের কৃষি উৎপাদনের অভাবনীয় সাফল্য তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, রপ্তানি ও প্রক্রিয়াজাতে বাংলাদেশ পিছিয়ে আছে। দেশের আম, আনারস, কলা, টমেটো, আলু ও শাকসবজি প্রভৃতি রপ্তানি ও প্রক্রিয়াজাতের সম্ভাবনা অনেক। এক্ষেত্রে নেদারল্যান্ডের প্রযুক্তিগত সহযোগিতা প্রয়োজন। উত্তম কৃষিচর্চা মেনে উৎপাদনেও নেদারল্যান্ডের সহযোগিতা দরকার।

          এছাড়া পূর্বাচলের ২ একর জমিতে আধুনিক প্যাকিং হাউজ নির্মাণ ও আধুনিক টেস্টিং ল্যাব স্থাপনে সহযোগিতা এবং কৃষিখাতে নেদারল্যান্ডের বিনিয়োগ প্রত্যাশা করেন মন্ত্রী।

          নেদারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত কৃষিখাতে বাংলাদেশকে সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। তিনি বলেন, কৃষিতে সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য শীঘ্রই বাংলাদেশের সাথে সমঝোতা স্মারক সই করা হবে। নেদারল্যান্ডের প্রাইভেট সেক্টরকে সম্পৃক্ত করার বিষয়েও উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। 

          প্ল্যান্ট ভ্যারাইটি প্রটেকশন, এগ্রিকালচারাল ট্রান্সফর্মেশন প্রোগ্রাম, ফাইটোস্যানিটারি সার্টিফিকেট, টেস্টিং ল্যাব ও বেসরকারি খাতের মধ্যে সংযোগ স্থাপন প্রভৃতি বিষয়ে দু’দেশ একসাথে কাজ করবে। এছাড়া কৃষিখাতে সহযোগিতার ক্ষেত্র চিহ্নিত করতে নেদারল্যান্ড থেকে ট্রেড মিশন আসা ও বাংলাদেশ থেকে একটি এক্সপার্ট মিশন যাওয়ার ব্যাপারে দু’দেশ সম্মত হয়।

#

কামরুল/পাশা/নাইচ/সাহেলা/রেজুয়ান/এনায়েত/মোশারফ/জয়নুল/২০২১/১৯৫০ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                            নম্বর :  ৪৭৩৫

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদন

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) : 

 

            স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর তথ্যানুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৪ হাজার ৯২৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭৯৪ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৫ লাখ ৫৮ হাজার ৭৫৮ জন। 

          গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮ জন-সহ এ পর্যন্ত ২৭ হাজার ৫৯১ জন এ রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন।

          করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ১৯ হাজার ৫৮৮ জন।

#

ইউনুস/পাশা/সাহেলা/রেজুয়ান/মোশারফ/শামীম/২০২১/১৭৫৬ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                     নম্বর : ৪৭৩৪

নবায়নযোগ্য জ্বালানি সম্প্রসারণে টেকসই  জ্বালানি ব্যবস্থাপনা প্রয়োজন

                                                                  -বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :

          বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, নবায়নযোগ্য জ্বালানির সম্প্রসারণে টেকসই জ্বালানি ব্যবস্থাপনা প্রয়োজন। সৌর বিদ্যুতের জন্য জমির স্বল্পতা নিরসনে উন্নত প্রযুক্তি সমহারে বণ্টন করা আবশ্যক। আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বৃদ্ধি পেলে নবায়নযোগ্য জ্বালানি সম্প্রসারিত হবে এবং ক্লিন জ্বালানির ব্যবহার বৃদ্ধি পাবে।

          প্রতিমন্ত্রী আজ অনলাইনে প্রথম এশিয়া গ্রিন গ্রোথ পার্টনারশিপ মিনিস্টেরিয়াল মিটিং (1st Asia Green Growth Partnership Ministerial Meeting)- এ বক্তব্য প্রদানকালে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, নবায়নযোগ্য জ্বালানি নীতিমালা বাস্তবায়নে বাংলাদেশ বছরভিত্তিক নবায়নযোগ্য জ্বালানি হতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিকল্পনা গ্রহণ করছে। ৬০ লাখ সোলার হোম সিস্টেমের মাধ্যমে ২ কোটি গ্রামীণ গ্রাহককে বিদ্যুতায়নের আওতায় আনা হয়েছে। ছাদ সৌর বিদ্যুৎকে জনপ্রিয় করার জন্য নেট মিটারিং গাইডলাইন তৈরি করা হয়েছে। সেচ কাজের জন্য সোলার পাম্প ব্যবহৃত হচ্ছে। ৫টি বায়ুচালিত বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মাধ্যমে ২৪৫ মেগাওয়াট ক্ষমতার বিদ্যুৎ উৎপাদনের কাজ চলমান রয়েছে। বর্জ্য হতে ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। উপরন্তু নেপাল ও ভুটান হয়ে জলবিদ্যুৎ আমদানি করার কাজও চলমান রয়েছে। নবায়নযোগ্য জ্বালানি ও ক্লিন জ্বালানির অংশ বাড়াতে সরকার পাওয়ার সিস্টেম মাস্টার প্ল্যান হালনাগাদ করছে।

          জাপানের অর্থনীতি, বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী হিরোশি কাজিয়ামা’র সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে সৌদী আরবের জ্বালানি মন্ত্রী প্রিন্স আব্দুল আজিজ বিন সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ, সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ড. সুলতান আহমেদ আল জাবের, ইন্দোনেশিয়ার জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রী আরেফিন তাসরিফ ও ইন্টারন্যাশনাল এনার্জি এজেন্সির নির্বাহী পরিচালক ড. ফাতিহ্ বিরল সংযুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন।

 

#

আসলাম/পাশা/নাইচ/সাহেলা/রেজুয়ান/এনায়েত/মোশারফ/শামীম/২০২১/১৮২১ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ৪৭৩৩

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে পরিকল্পিত নগরায়নের লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার

                                                                                        -- গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :

          গৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কার্বনমুক্ত, টেকসই, নিরাপদ ও সাশ্রয়ী আবাসন এবং পরিকল্পিত নগরায়ন নিশ্চিত করতে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

          রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বিশ্ব বসতি দিবস উপলক্ষ্যে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, অপরিকল্পিত নগরায়ন, শিল্পায়ন এবং জীবাশ্ম জ্বালানির মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে বায়ুমন্ডলে কার্বনের পরিমাণ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে গ্রিন হাউস ইফেক্টের মাধ্যমে বৈশ্বিক উষ্ণতা আশঙ্কাজনক বেড়ে চলেছে। ফলে প্রাকৃতিক দুর্যোগের সংখ্যা ও  তীব্রতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। যেহেতু বাংলাদেশ ভৌগোলিকভাবে একটি দুর্যোগপ্রবণ এলাকায় অবস্থিত সেহেতু বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের এই ক্ষতিকর প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান শীর্ষে রয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত মোকাবিলায় উন্নত বিশ্বের পাশাপাশি বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশেও উন্নয়ন পরিকল্পনায় বিশেষ গুরুত্ব দেয়া প্রয়োজন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর স্থলভাগের মোট আয়তনের মাত্র ২ শতাংশ শহরাঞ্চল। অথচ এই শহরাঞ্চল থেকেই মোট কার্বন নিঃসরণের ৭০ ভাগ কার্বন নিঃসৃত হয়। শহরের সমন্বিত উন্নয়ন এবং পরিকল্পিত নগরায়নের মাধ্যমে কার্বন নিঃসরণ হ্রাস করতে পারলে পৃথিবীর মোট কার্বন নিঃসরণের হার অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হবে। তিনি আরো বলেন, ইউএন হ্যাবিট্যাট এর তথ্য মতে আধুনিক প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে ভবনসমূহ থেকে নিঃসৃত কার্বনের ৫৮ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস করা সম্ভব।

          শরীফ আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে অর্থাৎ ২০৪১  সালের মধ্যে একটি উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সবার জন্য আবাসন নিশ্চিতের জন্য নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। সুষ্ঠু পরিকল্পনা ও গবেষণার মাধ্যমে জমির সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিত করে সবার জন্য আবাসনের ব্যবস্থা করতে সরকার সর্বদা সচেষ্ট রয়েছে। সকল প্রকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে পরিবেশ সুরক্ষার বিষয়টি সর্বাগ্রে প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। এজন্য আবাসিক স্থাপনা নির্মাণে উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার, পরিবেশবান্ধব নির্মাণ সামগ্রী, বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ব্যবস্থা, রেইন ওয়াটার হারভেস্টিং, নিজস্ব সুয়ারেজ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট এবং পর্যাপ্ত সবুজায়নের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে ল্যান্ডস্কেপিং, সৌরবিদ্যুৎ ইত্যাদি প্রয়োগের মাধ্যমে গ্রিন বিল্ডিং টেকনোলজি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।

          উল্লেখ্য যে, ১৯৮৬ সাল থেকে প্রতিবছর অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার ইউএন হ্যাবিটাট ঘোষিত বিশ্ব বসতি দিবস পালন হয়ে থাকে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে, "Accelerating Urban Action for a Carbon Free World" যার বাংলা করা হয়েছে,‘নগরীয় কর্মপন্থা প্রয়োগ করি, কার্বন মুক্ত বিশ্ব গড়ি’।

          গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: শহীদ উল্লা খন্দকারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে ইউএনডিপির আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখার্জী। অনুষ্ঠানের মূলপ্রবন্ধ সম্মিলিতভাবে উপস্থাপন করেন নগর উন্নয়ন অধিদপ্তরের পরিচালক ডঃ খুরশিদ জাবিন হক, স্থাপত্য অধিদপ্তরের প্রধান স্থপতি মনজুরুর রহমান, হাউসিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক আশরাফুল আলম এবং গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী শামীম আখতার।

#

রেজাউল/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/শাম্মী/রেজ্জাকুল/শামীম/২০২১/১৬৩০ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                                    নম্বর : ৪৭৩২

এসডিজি অর্জনে বিশ্বের অনেক দেশের চেয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে

                                                                         -- শ ম রেজাউল করিম

জেদ্দা (সৌদি আরব) ৪ অক্টোবর :

          মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বাংলাদেশের বিস্ময়কর অগ্রগতি সারা বিশ্বে প্রশংসা অর্জন করেছে। আর এ সাফল্যের রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্প্রতি জাতিসংঘে এসডিজির সাফল্যের জন্য তাঁকে অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে এবং সে অ্যাওয়ার্ডে বলা হয়েছে বিশ্বের অনেক দেশের চেয়ে অনেক সূচকে বাংলাদেশ এগিয়ে গেছে।

          গতকাল সৌদি আরবের জেদ্দায় সৌদি আরব কৃষক লীগ, শাখা আয়োজিত  মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

          বিএনপি-জামায়াত দেশে ব্যর্থ হয়ে বিদেশে বসে মিথ্যাচার করছে  উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, দেশের ভেতরে দুটি অংশ। একটি আওয়ামী লীগ ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে। আরেকটি হচ্ছে আওয়ামী বিরোধী। এরা স্বাধীনতাবিরোধী ও তাদের নতুন প্রজন্ম। যারা এখনো পাকিস্তানকে ভুলতে পারেনি, যারা সাম্প্রদায়িকতার কথা বলে, যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ বাদ দিয়ে আবার পাকিস্তানের স্বপ্নে বিভোর হতে চায়। দেশের মানুষ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে।

          বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বাংলাদেশকে কার্যত পাকিস্তানে পরিণত করার চেষ্টা হয়েছিল উল্লেখ করে মন্ত্রী আরো বলেন, জিয়াউর রহমান ইনডেমনিটি অধ্যাদেশকে আইনে পরিণত করে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচারের পথ বন্ধ করেছেন এবং খুনিদের রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন পদ-পদবিতে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে আবার মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

          প্রবাসীদের কল্যাণে বাংলাদেশ সরকারের দেওয়া নানা সুযোগ-সুবিধার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা বিশ্বাস করেন আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রবাসীদের কষ্টার্জিত অর্থের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। তিনি এজন্য প্রবাসীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

          কৃষক লীগ, সৌদি আরব শাখার সভাপতি কামরুল হাসান জুয়েলের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক। অন্যান্যের মধ্যে জেদ্দায় বাংলাদেশ মিশনের কাউন্সিলর এবং স্থানীয় প্রবাসী আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

#

ইফতেখার/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/শাম্মী/রেজ্জাকুল/শামীম/২০২১/১৬০৯ ঘণ্টা

 

তথ্যবিবরণী                                                                                                           নম্বর : ৪৭৩১

উপনির্বাচনে জয়ী হওয়ায় মমতা ব্যানার্জীকে অভিনন্দন জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর ) :

          উপনির্বাচনে রেকর্ড ভোটে জয়ী হওয়ায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী এবং তাঁর দল তৃণমূল কংগ্রেসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

          মমতা ব্যানার্জীকে লেখা অভিনন্দন বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন, পারস্পরিক মঙ্গল ও উন্নয়নের স্বার্থে, আগামী দিনগুলোতে পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ এবং পরিপূরক হবে ।

          ড. মোমেন বলেন, টানা তৃতীয় মেয়াদে ভবানীপুর নির্বাচনি এলাকায় বিপুল বিজয়, মমতা ব্যানার্জীর নেতৃত্বের প্রতি পশ্চিমবঙ্গের জনগণের অব্যাহত আস্থা ও সুগভীর বিশ্বাসের প্রতিফলন। মমতা ব্যানার্জীর যোগ্য নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গের জনগণের সর্বাঙ্গীণ উন্নতি ও উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেন তিনি।

          পররাষ্ট্রমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও অব্যাহত সাফল্য কামনা করেন এবং আসন্ন শারদীয় র্দুগাপূজার শুভেচ্ছা জানান ।

#

তৌহিদুল/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/শাম্মী/রেজ্জাকুল/শামীম/২০২১/১৫২৪ ঘণ্টা

তথ্যবিবরণী                                                                                                  নম্বর : ৪৭৩০

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের সেপ্টেম্বর মাসের বেতন-ভাতার চেক হস্তান্তর

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) :     

          মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরাধীন বেসরকারি স্কুল ও কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের সেপ্টেম্বর মাসের বেতন-ভাতার সরকারি অংশের ৮টি চেক অনুদান বণ্টনকারী অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংক এর প্রধান কার্যালয়ে এবং জনতা ও সোনালী ব্যাংক এর স্থানীয় কার্যালয়ে হস্তান্তর করা হয়েছে।

          শিক্ষক-কর্মচারীরা আগামী ৭ অক্টোবর পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট শাখা ব্যাংক থেকে সেপ্টেম্বর মাসের বেতন-ভাতার সরকারি অংশ উত্তোলন করতে পারবেন।

#

বিপুল/অনসূয়া/পরীক্ষিৎ/শাম্মী/রেজ্জাকুল/আসমা/২০২১/১৩০০ ঘণ্টা  

তথ্যবিবরণী                                                                                                        নম্বর : ৪৭২৯

আগামীকালের মধ্যে আরো ২৫ লাখ ডোজ ফাইজার ভ্যাকসিন আসছে

ঢাকা, ১৯ আশ্বিন (৪ অক্টোবর) :  

          আজ ও আগামীকাল তিন দফায় মোট ২৫ লাখ ৮ হাজার ৪৮০ ডোজ ফাইজার ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছাবে। আজ রাত ১১.২০ টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এমিরেটস এয়ারলাইন্সে যুক্তরাষ্ট্র থেকে কোভ্যাক্স সহায়তার আওতায় প্রথম শিপমেন্টে ৬ লাখ ২৫ হাজার ৯৫০ ডোজ এবং আগামীকাল বেলা ১২ টায় দ্বিতীয় দফায় ১২ লাখ ৫৬ হাজার ৫৮০ ডোজ এবং রাত ১১.২০ টায় ৩য় দফায় আরো ৬ লাখ ২৫ হাজার ৯৫০ ডোজ ফাইজার ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছবে। ভ্যাকসিনগুল

2021-10-04-16-52-b285a02290935ec22f9c2a0a52c525f2.doc 2021-10-04-16-52-b285a02290935ec22f9c2a0a52c525f2.doc

Share with :

Facebook Facebook